Covid-19 মোকাবিলায় রেল কামরায় তৈরি হল আইসোলেশন ওয়ার্ড, জোর ভেন্টিলেটর উৎপাদনে

  • করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সরকারি উদ্যোগে সাড়া দিয়ে অভিনব পদক্ষেপ ভারতীয় রেলের। পাশাপাশি, মাস্ক, স্যানিটাইজার ও ভেন্টিলেটর তৈরি বাড়াতে উদ্যোগ নিল কেন্দ্র।
থ্রি টায়ার কামরায় তৈরি হয়েছে করোনা আক্রান্তদের আইসোলেশন ওয়ার্ড। ছবি: টুইটার।
1/6থ্রি টায়ার কামরায় তৈরি হয়েছে করোনা আক্রান্তদের আইসোলেশন ওয়ার্ড। ছবি: টুইটার।
Covid-19 আক্রান্তদের জন্য ট্রেনের কামরায় তৈরি করা হল আইসোলেশন ওয়ার্ড। আইসোলেশন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করতে থ্রি টায়ার কামরার একদিকের মিডল বার্থটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। রোগীর বার্থের উল্টো দিক থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে তিনটি বার্থই। ছবি: টুইটার।
2/6Covid-19 আক্রান্তদের জন্য ট্রেনের কামরায় তৈরি করা হল আইসোলেশন ওয়ার্ড। আইসোলেশন ওয়ার্ডে রূপান্তরিত করতে থ্রি টায়ার কামরার একদিকের মিডল বার্থটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। রোগীর বার্থের উল্টো দিক থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে তিনটি বার্থই। ছবি: টুইটার।
বার্থে ওঠার জন্য ব্যবহৃত সিঁড়িও সরানো হয়েছে। সংস্কার করা হয়েছে কামরা সংলগ্ন শৌচাগার, যাতায়াতের প্যাসেজ এবং অন্যান্য এলাকা।  ছবি: টুইটার।
3/6বার্থে ওঠার জন্য ব্যবহৃত সিঁড়িও সরানো হয়েছে। সংস্কার করা হয়েছে কামরা সংলগ্ন শৌচাগার, যাতায়াতের প্যাসেজ এবং অন্যান্য এলাকা। ছবি: টুইটার।
করোনা সংক্রমণ রুখতে বেসরকারি পরীক্ষারগুলিকেও নমুনা পরীক্ষা করার অনুমোদন দিয়েছে প্রশাসন। দেশে সংক্রমণের হার দ্রুত বাড়ার ফলে বিশেষ করোনাভাইরাস ইউনিট তৈরি করেছে কেন্দ্রীয় ওষুধের মান নিয়ন্ত্রণ সংস্থা (CDSCO)। Covid-19 পরীক্ষার সরঞ্জামের অনুমোদন পেতে ১০ দিন আগে আবেদন বাধ্যতামূলক করেছে সংস্থা।
4/6করোনা সংক্রমণ রুখতে বেসরকারি পরীক্ষারগুলিকেও নমুনা পরীক্ষা করার অনুমোদন দিয়েছে প্রশাসন। দেশে সংক্রমণের হার দ্রুত বাড়ার ফলে বিশেষ করোনাভাইরাস ইউনিট তৈরি করেছে কেন্দ্রীয় ওষুধের মান নিয়ন্ত্রণ সংস্থা (CDSCO)। Covid-19 পরীক্ষার সরঞ্জামের অনুমোদন পেতে ১০ দিন আগে আবেদন বাধ্যতামূলক করেছে সংস্থা।
Covid-19 আক্রান্তদের জন্য বিশেষ সুবিধার ব্যবস্থা করতে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় প্রশাসন। জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার উদ্দেশে নির্দিষ্ট হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র চিহ্নিত করেছে এ পর্যন্ত প্রায় ২০টি রাজ্য।
5/6Covid-19 আক্রান্তদের জন্য বিশেষ সুবিধার ব্যবস্থা করতে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় প্রশাসন। জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার উদ্দেশে নির্দিষ্ট হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র চিহ্নিত করেছে এ পর্যন্ত প্রায় ২০টি রাজ্য।
দেশজুড়ে ভেন্টিলেটরের অভাব পূর্ণ করতে রফতানি বন্ধের পাশাপাশি সরকারি সংস্থাগুলিকে প্রায় ৪০ হাজার ভেন্টিলেটর তৈরির বরাত দিয়েছে কেন্দ্র। একই সঙ্গে ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত মাস্ক ও স্যানিটাইজার উৎপাদনে জোর দিয়েছে প্রশাসন।
6/6দেশজুড়ে ভেন্টিলেটরের অভাব পূর্ণ করতে রফতানি বন্ধের পাশাপাশি সরকারি সংস্থাগুলিকে প্রায় ৪০ হাজার ভেন্টিলেটর তৈরির বরাত দিয়েছে কেন্দ্র। একই সঙ্গে ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত মাস্ক ও স্যানিটাইজার উৎপাদনে জোর দিয়েছে প্রশাসন।
অন্য গ্যালারিগুলি