বাংলা নিউজ > ছবিঘর > এক যুবকের দুই প্রেমিকা, টস করে সিদ্ধান্ত কে বিয়ে করবেন!

এক যুবকের দুই প্রেমিকা, টস করে সিদ্ধান্ত কে বিয়ে করবেন!

  • খেলা হবে?
একই যুবকের দুই প্রেমিকা। দু'জনেই মরিয়া বিয়ে করতে। শেষমেশ বিয়ের আসরে টস করে নেওয়া হল সিদ্ধান্ত। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
1/5একই যুবকের দুই প্রেমিকা। দু'জনেই মরিয়া বিয়ে করতে। শেষমেশ বিয়ের আসরে টস করে নেওয়া হল সিদ্ধান্ত। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
ঘটনাটি কর্ণাটকের এক গ্রামের। সেখানে একই যুবককে বিয়ে করবেন বলে হাজির হন তাঁর দুই প্রেমিকা। দু'জনেই নিজের দাবিতে অটল থাকেন। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
2/5ঘটনাটি কর্ণাটকের এক গ্রামের। সেখানে একই যুবককে বিয়ে করবেন বলে হাজির হন তাঁর দুই প্রেমিকা। দু'জনেই নিজের দাবিতে অটল থাকেন। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
এমন আজব দাবিতে ঘাবড়ে যান গ্রামবাসীরা। গ্রামের বয়স্করা অনেক বোঝানোর চেষ্টা করেন দুই তরুণীকে। কিন্তু দুই তরুণীই বিয়ের দাবিতে অটল। এমনকি এক তরুণী আত্মহত্যারও চেষ্টা করেন। অবশেষে গ্রামবাসীদের কেউ টস করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দেন। বড়রাও দ্রুত মীমাংসার আশায় তাতেই সায় দেন। রাজি হন প্রেমিকা-প্রতিদ্বন্দীরাও। প্রতীকী ছবি : রয়টার্স  (Reuters)
3/5এমন আজব দাবিতে ঘাবড়ে যান গ্রামবাসীরা। গ্রামের বয়স্করা অনেক বোঝানোর চেষ্টা করেন দুই তরুণীকে। কিন্তু দুই তরুণীই বিয়ের দাবিতে অটল। এমনকি এক তরুণী আত্মহত্যারও চেষ্টা করেন। অবশেষে গ্রামবাসীদের কেউ টস করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দেন। বড়রাও দ্রুত মীমাংসার আশায় তাতেই সায় দেন। রাজি হন প্রেমিকা-প্রতিদ্বন্দীরাও। প্রতীকী ছবি : রয়টার্স  (Reuters)
এরপর একটি বন্ড পেপারে সই করেন দুই তরুণী। এক গ্রামবাসী সাক্ষী হিসাবে সই করেন। এমন সময়ে হঠাত্ই গুণধর প্রেমিক নিজের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। আত্মহত্যা করতে যাওয়া তরুণীকে তিনি জড়িয়ে ধরেন। সঙ্গে সঙ্গে অপর তরুণী ছুটে এসে তাঁকে চড় মারেন। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
4/5এরপর একটি বন্ড পেপারে সই করেন দুই তরুণী। এক গ্রামবাসী সাক্ষী হিসাবে সই করেন। এমন সময়ে হঠাত্ই গুণধর প্রেমিক নিজের ইচ্ছা প্রকাশ করেন। আত্মহত্যা করতে যাওয়া তরুণীকে তিনি জড়িয়ে ধরেন। সঙ্গে সঙ্গে অপর তরুণী ছুটে এসে তাঁকে চড় মারেন। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
এরপর আর বেশি কথা বাড়াননি তিনি। সেখান থেকে চলে যান। কথা বাড়ায়নি গ্রামবাসীরাও। শেষমেষ বিয়ে হয় ওই যুবতী ও যুবকের। টস ছাড়াই ম্যাচ খতম (নাকি শুরু?) হয়ে যায়। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
5/5এরপর আর বেশি কথা বাড়াননি তিনি। সেখান থেকে চলে যান। কথা বাড়ায়নি গ্রামবাসীরাও। শেষমেষ বিয়ে হয় ওই যুবতী ও যুবকের। টস ছাড়াই ম্যাচ খতম (নাকি শুরু?) হয়ে যায়। ফাইল ছবি : ফেসবুক (Facebook)
অন্য গ্যালারিগুলি