বাংলা নিউজ > ছবিঘর > কোন পশুর মাধ্যমে মানবদেহে করোনা সংক্রমণ, চলেছে বিশ্বজুড়ে তল্লাশি

কোন পশুর মাধ্যমে মানবদেহে করোনা সংক্রমণ, চলেছে বিশ্বজুড়ে তল্লাশি

  • বিশ্বজুড়ে মহামারীর রূপCovid-19 এর সূত্রপাত নিয়ে একাধিক তত্ত্ব প্রচলিত রয়েছে। বিজ্ঞানীদের একাংশ মনে করেন, কোনও পশুর মাধ্যমেই মানবদেহে এই জীবাণুর সংক্রমণ শুরু হয়।
বিশ্বজুড়ে অব্যাহত করোনাভাইরাস সংক্রমণের দাপট। প্রতিদিন বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার রোগী Covid-19 এ আক্রান্ত হচ্ছেন। মহামারী থেকে নিষ্কৃতি পেতে বিশ্বজুড়ে চলেছে ওষুধ ও সংক্রমণের চরিত্র নিয়ে গবেষণা। উঠে আসছে বিভিন্ন তত্ত্ব।
1/6বিশ্বজুড়ে অব্যাহত করোনাভাইরাস সংক্রমণের দাপট। প্রতিদিন বিভিন্ন দেশের হাজার হাজার রোগী Covid-19 এ আক্রান্ত হচ্ছেন। মহামারী থেকে নিষ্কৃতি পেতে বিশ্বজুড়ে চলেছে ওষুধ ও সংক্রমণের চরিত্র নিয়ে গবেষণা। উঠে আসছে বিভিন্ন তত্ত্ব।
চিনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরের কাঁচাবাজার থেকেই প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। প্রথমে দাবি উঠেছিল, এই বাজারে বিক্রি হওয়া পশুর মাংস খাওয়ার পরেই জীবাণু সংক্রমণ দেখা দেয়।
2/6চিনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরের কাঁচাবাজার থেকেই প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। প্রথমে দাবি উঠেছিল, এই বাজারে বিক্রি হওয়া পশুর মাংস খাওয়ার পরেই জীবাণু সংক্রমণ দেখা দেয়।
আমেরিকান সংবাদমাধ্যমের আবার দাবি, উহানের এক ভাইরোলজি ল্যাবরেটরিতে অসাবধানতার জেরে এক শিক্ষানবীশের শরীরে প্রবেশ করে পরীক্ষাগারে সংরক্ষিত মারাত্মক এই জীবাণু। পরে তাঁর থেকে ছড়িয়ে পড়ে শহরের অন্যান্য বাসিন্দাদের মধ্যে।
3/6আমেরিকান সংবাদমাধ্যমের আবার দাবি, উহানের এক ভাইরোলজি ল্যাবরেটরিতে অসাবধানতার জেরে এক শিক্ষানবীশের শরীরে প্রবেশ করে পরীক্ষাগারে সংরক্ষিত মারাত্মক এই জীবাণু। পরে তাঁর থেকে ছড়িয়ে পড়ে শহরের অন্যান্য বাসিন্দাদের মধ্যে।
আমেরিকা যা-ই দাবি করুক, বিজ্ঞানীদের মতে, করোনাভাইরাস কোনও পশুর দেহে প্রথম থেকেই বাসা বেঁধেছিল। সন্দেহের তালিকায় রয়েছে ইবোলা, নিপা, সার্স-এর মতো একাধিক ভয়াবহ জীবাণুর বাহক হিসেবে পরিচিত বাদুড়। সম্প্রতি ভারতে দুই প্রজাতির বাদিড়ের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গিয়েছে।
4/6আমেরিকা যা-ই দাবি করুক, বিজ্ঞানীদের মতে, করোনাভাইরাস কোনও পশুর দেহে প্রথম থেকেই বাসা বেঁধেছিল। সন্দেহের তালিকায় রয়েছে ইবোলা, নিপা, সার্স-এর মতো একাধিক ভয়াবহ জীবাণুর বাহক হিসেবে পরিচিত বাদুড়। সম্প্রতি ভারতে দুই প্রজাতির বাদিড়ের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গিয়েছে।
চিনের গুয়াংঝৌ প্রদেশের বিজ্ঞানীদের মতে, পিঁপড়েখোটক প্যাঙ্গোলিনের থেকেই মানবদেহে করোনাভাইরাস প্রবেশ করে। অভিযোগ ওঠে, উহান শহরের কাঁচাবাজারে প্যাঙ্গোলিনের মাংস বিক্রি হয়। সেই সূত্রেই সেখানে প্রথম সংক্রমণ দেখা দেয়। পরে অবশ্য জানা গিয়েছে, প্যাঙ্গোলিন হত্যা অবৈধ এবং উহানে কোনও দিনই তার মাংস বিক্রি হত না।
5/6চিনের গুয়াংঝৌ প্রদেশের বিজ্ঞানীদের মতে, পিঁপড়েখোটক প্যাঙ্গোলিনের থেকেই মানবদেহে করোনাভাইরাস প্রবেশ করে। অভিযোগ ওঠে, উহান শহরের কাঁচাবাজারে প্যাঙ্গোলিনের মাংস বিক্রি হয়। সেই সূত্রেই সেখানে প্রথম সংক্রমণ দেখা দেয়। পরে অবশ্য জানা গিয়েছে, প্যাঙ্গোলিন হত্যা অবৈধ এবং উহানে কোনও দিনই তার মাংস বিক্রি হত না।
চলতি সপ্তাহের গোড়ায় ICMR-এর বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সম্ভবত বাদুড়ের থেকে মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণ ঘটাতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা নিয়েছিল প্যাঙ্গোলিন। সংস্থার মহামারী ও সংক্রামক ব্যাধি বিভাগের প্রধান গঙ্গাখেড়কর জানিয়েছেন, 'চিনে সাম্প্রতিক গবেষণায় ধরা পড়েছে, বাদুড়ের কোষ থেকে প্যাঙ্গোলিনের দেহে কোনও ভাবে এই ভাইরাস সংক্রামিত হয়। পরে প্যাঙ্গোলিনের থেকেই তারপরে মানবদেহে প্রবেশ করে করোনাভাইরাস।'
6/6চলতি সপ্তাহের গোড়ায় ICMR-এর বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সম্ভবত বাদুড়ের থেকে মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণ ঘটাতে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকা নিয়েছিল প্যাঙ্গোলিন। সংস্থার মহামারী ও সংক্রামক ব্যাধি বিভাগের প্রধান গঙ্গাখেড়কর জানিয়েছেন, 'চিনে সাম্প্রতিক গবেষণায় ধরা পড়েছে, বাদুড়ের কোষ থেকে প্যাঙ্গোলিনের দেহে কোনও ভাবে এই ভাইরাস সংক্রামিত হয়। পরে প্যাঙ্গোলিনের থেকেই তারপরে মানবদেহে প্রবেশ করে করোনাভাইরাস।'
অন্য গ্যালারিগুলি