বাড়ি > ময়দান > বাংলার কোচ থাকছেন অরুণ লাল, ক্রিকেটারদের চক্ষু পরীক্ষা বাধ্যতামূলক
সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বাংলা কোচ অরুণ লাল।
সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বাংলা কোচ অরুণ লাল।

বাংলার কোচ থাকছেন অরুণ লাল, ক্রিকেটারদের চক্ষু পরীক্ষা বাধ্যতামূলক

  • উইকেটকিপার ও স্পিনারদের জন্য বিশেষ কোচিং ক্লিনিকের ভাবনা।

অরুণ লাল আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, আসন্ন মরশুমে বাংলার কোচ থাকছেন তিনিই। সেই খবরে সিলমোহর দিল ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল। সিএবির তরফে জানিয়ে দেওয়া হল, আগামী মরশুমে বাংলার রাশ থাকছে লাল জি'র হাতেই।

শুধু অরুণ লালকে কোচ হিসেবে রেখে দেওয়াই নয়, গতবার দলকে রঞ্জি ফাইনালে তোলা গোটা কোচিং স্টাফের দলটাকেই ধরে রাখল সিএবি। যথারীতি বাংলার সব দলের বোলিং কোচ থাকছেন রণদেব বসু। সিনিয়র দলের স্পিন বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করবেন উৎপল চট্টোপাধ্যায়। ক্রিকেট অপারেশনের দায়িত্বে বহাল থাকছেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়।

সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বাংলার কোচিং স্টাফদের বৈঠকের পর আসন্ন মরশুমের জন্য বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রথমত, সিএবির তরফে আগেই জানানো হয়েছিল যে, করোনা সংক্রমণের আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে ক্রিকেটারদের নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হবে। এবার স্থির হয়েছে ক্রিকেটারদের চক্ষু পরীক্ষা করাও বাধ্যতামূলক।

দীপ দাশগুপ্তর তত্ত্বাবধানে উইকেটকিপারদের জন্য বিশেষ কোচিং ক্লিনিক আয়োজন করা হবে। বিশেষজ্ঞ স্পিনারদের নজরদারিতে নির্বাচিত স্পিনারদের নিয়ে ৭-১০ দিনের স্পিন কোচিং ক্যাম্প আয়োজন করা হবে।

ক্রিকেটারদের ফিটনেসের দিকে বাড়তি নজর দেওয়া হচ্ছে। শুধু মরশুমের শুরুতেই নয়, মরশুমের মাঝেও ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট দিতে হবে এবার থেকে। ব্যাটিং গভীরতা বাড়ানোর জন্য নেটে বোলারদেরও পর্যাপ্ত ব্যাটিং প্র্যাকটিস দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মরশুমের শুরুতেই টিম স্পিরিট বাড়ানোর উদ্দেশ্যে বিশেষ সেশন আয়োজন করা হবে। যদিও কবে থেকে অনুশীলন শুরু হবে সে সম্পর্কে নির্দিষ্ট কোনও দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয়নি। শুধু জানানো হয়েছে, সিএবি পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে। পরবর্তী সময়ে এই নিয়ে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

বন্ধ করুন