বাংলা নিউজ > ময়দান > AUS vs IND: স্লেজিং নেই, রয়েছে বন্ধুত্ব, IPL বদলে দিয়েছে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকটীয় সম্পর্ক, দেখুন ভিডিও
ম্যাচের মাঝেই ফিঞ্চ ও রাহুলের খুনসুটি। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।
ম্যাচের মাঝেই ফিঞ্চ ও রাহুলের খুনসুটি। ছবি- স্ক্রিনগ্র্যাব।

AUS vs IND: স্লেজিং নেই, রয়েছে বন্ধুত্ব, IPL বদলে দিয়েছে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকটীয় সম্পর্ক, দেখুন ভিডিও

  • মাঠেই খুনসুটিতে মেতে উঠলেন অ্যারন ফিঞ্চ ও লোকেশ রাহুল।

আইপিএল বদলে দিয়েছে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার দ্বি-পাক্ষিক ক্রিকেটীয় সম্পর্ক। অতীতে মাঠের বৈরিতার মাঝে কদাচিৎই মাঠের বাইরের বন্ধুত্ব চোখে পড়ত দু'দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে। বরং দ্বি-পাক্ষিক সিরিজ শুরুর বহু আগে থেকেই কথার লড়াইয়ে হাওয়া গরম করতে দেখা যেত দু'দেশের বর্তমান ও প্রাক্তন ক্রিকেটারদের। বলাবাহুল্য অজিরাই অক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতেন।

আইপিএলের ফলে বদলে গিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট সংস্কৃতি। এখন মাঠের বাইরের কথার লড়াই তো দূরের কথা, মাঠের মধ্যে অজিদের পরিচিত স্লেজিংও চোখে পড়ছে না। সিডনির দু'টি ওয়ান ডে ম্যাচেই বরং দু'দেশের ক্রিকেটারদের বন্ধুত্বের ছবি চোখে পড়ে ক্রিকেটমহলের।

তাই বলে এই নয় যে ব্যাট-বলের লড়াইয়ে প্রভাব পড়েছে এই বন্ধুত্বের। দু'টি হাই-স্কোরিং ম্যাচই তার প্রমাণ। তবে যথাযথ স্পিরিট মেনে বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশেও যে দুরন্ত ক্রিকেটীয় লড়াই উপহার দেওয়া যায়, তারই আদর্শ নমুনা তুলে ধরল সিডনির ম্যাচ দু'টি।

প্রথম ম্যাচে খেলা চলাকালীন ডেভিড ওয়ার্নারকে হার্দিক পান্ডিয়ার জুতোর ফিতে বেঁধে দিতে দেখা গিয়েছে। পান্ডিয়া অবশ্য তার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাতে ভোলেননি ওয়ার্নারকে। ফিস্ট পাঞ্চে একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা প্রকাশ করেন দুই তারকা।

এবার দ্বিতীয় ম্যাচ চলাকালীন ফিঞ্চের সঙ্গে লোকেশ রাহুলের খুনসুটির ছবিও ধরা পড়ে। অজি ইনিংসের ১৪তম ওভারে সাইনির ফুলটস সরাসরি ফিঞ্চের পেটে গিলে লাগলে তিনি ব্যাথা কমাতে কিছুটা বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। ঠিক তখনই লোকেশ রাহুল ফিঞ্চের পেটে কাতুকুতু দেওয়ার চেষ্টা করেন। ফিঞ্চ নিছক মজার ছলে পালটা রাহুলের পেটে ঘুষি মারার চেষ্টা করেন।

আইসিসি ঘটনার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জানতে চায় যে, এই ঘটনা দেখে কি দু'দলকে মাঠের প্রতিদ্বন্দ্বী মনে হচ্ছে?

বন্ধ করুন