বাংলা নিউজ > ময়দান > Australia vs India: অভিষেকেই একাধিক অনন্য নজির ওয়াশিংটন সুন্দরের

শুভব্রত মুখার্জি

সিডনি টেস্টে একেবারে শেষ বল পর্যন্ত অদম্য লড়াই চালিয়ে টেস্ট ড্র করেছিলেন অশ্বিন-বিহারীরা। চোট নিয়েও সেই অদম্য লড়াই করার পরে অবশ্য বিহারী, অশ্বিন, জাদেজা, বুমরাহরা ছিটকে গিয়েছেন ব্রিসবেন টেস্ট থেকে। করোনাকালে কিছুটা বাধ্য হয়েই ভারতকে ব্রিসবেনে অভিষেক ঘটানোর সুযোগ করে দিতে হয় নটরাজন এবং ওয়াশিংটন সুন্দরকে। প্রসঙ্গত দুই বোলারকেই এই সিরিজে ভারত নিয়ে এসেছিল নেট বোলার হিসেবে। সেখান থেকে তিনটি সিরিজেই দেশের হয়ে প্রথমবার মাঠে নামার নজির গড়েছেন নটরাজন।

তবে পিছিয়ে থাকলেন না ওয়াশিংটন সুন্দরও। ব্যাট হাতে হোক অথবা বল, যখন দলের প্রয়োজনে তাঁকে ডাকা হয়েছে, দলকে এনে দিয়েছেন সাফল্য। তৃতীয়দিনে একটা সময় প্রথম ইনিংসে ভারতের স্কোর তখন ১৮৬/৬ উইকেট। বিশেষজ্ঞরা ধরেই নিয়েছেন প্রথম ইনিংসে অজিরা ১৫০ রানের উপর লিড নিতে চলেছেন। ঠিক তখন শার্দুল ঠাকুরকে সঙ্গে নিয়ে অজি শিবিরে প্রত্যাঘাত পৌছে দিলেন সুন্দর। মূলত তাদের গড়া ১২৩ রানের পার্টনারশিপে ভর করেই প্রথম ইনিংসে ভারত স্কোর বোর্ডে তুলে ফেলে ৩৩৬ রান। ফলে অজিদের থেকে প্রথম ইনিংসে মাত্র ৩৩ রানে পিছিয়ে থাকে ভারত।

শার্দুল আউট হন ৬৭ রানে। আর সুন্দর করেন ৬২ রান। দুজনেই এই ম্যাচে অজিদের প্রথম ইনিংসে তিনটি করে উইকেট নেওয়ার পরে ব্যাটিংয়ের সময় নিজেদের প্রথম ইনিংসে করেন অর্ধশতরান। আর তা করতে গিয়েই একাধিক নজির গড়ে ফেলেছেন সুন্দর।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক সেই সব নজির:-

১) অজিভূমে সপ্তম উইকেটের জুটিতে ভারতের হয়ে সর্বাধিক রানের রেকর্ড গড়েছেন তাঁরা। তাঁদের ১২৩ রানের জুটি পিছনে ফেলেছে ১৯৯১ সালে গাব্বায় কপিল-প্রভাকরের গড়া ৫৮ রানের জুটিকে।

২) প্রথম অভিষেককারী হিসেবে অজিভূমে ৭ নম্বরে নেমে সর্বাধিক রানের মালিক এখন ওয়াশিংটন সুন্দর (৬২)।

৩) অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক ম্যাচেই সুন্দর নিয়েছেন ৩টি উইকেট এবং করেছেন অর্ধশতরান।

৪) ১৯৪৭ সালে দাত্তু ফাদকরের পরে প্রথম ভারতীয় হিসেবে অভিষেকেই অর্ধশতরান করা এবং ৩ উইকেট নেওয়া প্রথম ভারতীয় হলেন সুন্দর। প্রসঙ্গত টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে পঞ্চম ক্রিকেটার হিসেবে এই নজির গড়েছেন সুন্দর। তার আগে এই নজির গড়েছিলেন টিচ ফ্রিম্যান, ফ্র্যাঙ্ক ফস্টার, লেন ব্রন্ড এবং দাত্তু ফাদকর।

বন্ধ করুন