বাংলা নিউজ > ময়দান > Bangabandhu T20 Cup 2020: সতীর্থকে মারতে গিয়ে জরিমানা গুনতে হল মুশফিকুরকে, পাশে বসিয়ে চাইলেন ক্ষমা
পাশে বসিয়ে ছবি তুলে, ক্ষমা চেয়েও পার পেলেন না মুশফিকুর, কাটা গেল ম্যাচ ফি (ছবি সৌজন্য স্ক্রিনগ্র্যাব এবং ফেসবুক)
পাশে বসিয়ে ছবি তুলে, ক্ষমা চেয়েও পার পেলেন না মুশফিকুর, কাটা গেল ম্যাচ ফি (ছবি সৌজন্য স্ক্রিনগ্র্যাব এবং ফেসবুক)

Bangabandhu T20 Cup 2020: সতীর্থকে মারতে গিয়ে জরিমানা গুনতে হল মুশফিকুরকে, পাশে বসিয়ে চাইলেন ক্ষমা

  • দাবি করলেন, ভবিষ্যতে এরকম আচরণ করবেন না।

শুভব্রত মুখার্জি

মাঠে তাঁর আচরণ বারবার বিতর্ক তৈরি করেছে। ‘নাগিন ডান্স’ থেকে শুরু করে হালফিলে সতীর্থকে মারতে তেড়ে যাওয়া - সবক্ষেত্রেই মুশফিকুর রহিম বারবার বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন তাঁর আচরণে। সোমবার বাংলাদেশের ঘরোয়া বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে ঢাকার হয়ে খেলার সময় সতীর্থ জুনিয়র ক্রিকেটার নাসুম আহমেদকে রীতিমতো মারতে তেড়ে যান। নাসুম নিজের অধিনায়কের পিঠ চাপড়ে দিলেও 'রাগ' কিছুতেই কমছিল না মুশফিকুরের। দলের বাকি খেলোয়াড়দের কাছেও নালিশ করতে থাকেন। যার সবটা ধরা পড়ে টিভি ক্যামেরায়।

পরে নিজের আচরণের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন মুশফিকুর রহিম। নিজের কৃতকর্মের জন্য তিনি যে দুঃখিত, তা জানাতেও ভোলেননি। তবে এতকিছু করেও বাঁচাতে পারেননি শাস্তির কোপ‌। শাস্তিস্বরূপ ২৫ শতাংশ ম্যাচ ফি কাটা গিয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের উইকেটকিপারের।

মুশফিকুরের অখেলোয়াড়সুলভ আচরণ বারবার নিন্দিত হয়েছে। ফরচুন বরিশালের বিরুদ্ধে বেক্সিমকো ঢাকার হয়ে খেলার সময় সতীর্থ নাসুম আহমেদের সঙ্গে একাধিকবার দুর্ব্যবহার করে বসেন রহিম। নাসুমকে রীতিমতো মারতে উদ্যত হন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ম্যাচের সেই অংশের ভিডিয়ো ক্লিপ ভাইরাল হয়। যায়। গোটা ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন সকলেই।নিজের ভুল বুঝতে পেরে মঙ্গলবার সকালে ক্ষমা চান রহিম। 

সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের অফিসিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে একটি লেখা পোস্ট করে দুঃখপ্রকাশ করেন। সঙ্গে নাসুমের সঙ্গে ছবি পোস্ট করেন। লেখেন, 'গতকাল যা হয়েছে, তার জন্য আমি প্রথমেই আমার সমস্ত ফ্যান ও দর্শকদের কাছে ক্ষমা চাইছি। ম্যাচের পর নাসুমের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। উপরওয়ালার কাছেও ক্ষমাপ্রার্থী। মাঠে যে আচরণ করেছি, তা গ্রহণযোগ্য নয়। প্রতিজ্ঞা করছি, মাঠে কিংবা মাঠের বাইরে ভবিষ্যতে এমন ঘটনা আর কখনও ঘটাব না।'

বন্ধ করুন