বাংলা নিউজ > ময়দান > অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড: আউট না আউট নয়, এই নিয়ে তুমুল বিতর্কের মাঝেই গুণতিলকের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলেন পোলার্ড
দুঃখ প্রকাশ পোলার্ডের। ছবি- টুইটার।
দুঃখ প্রকাশ পোলার্ডের। ছবি- টুইটার।

অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড: আউট না আউট নয়, এই নিয়ে তুমুল বিতর্কের মাঝেই গুণতিলকের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলেন পোলার্ড

  • ফিল্ডিংয়ে বাধা সৃষ্টি করার দায়ে সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে শ্রীলঙ্কান ওপেনারকে আউট ঘোষণা করা হয়।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ওপেনার দানুষ্কা গুণতিলকের বিতর্কিত 'অবস্ট্রাক্টিং দ্য ফিল্ড' আউট নিয়ে স্পষ্ট বিভাজন দেখা দিয়েছে ক্রিকেটবিশ্বে। মাইকেল ভন, রাসেল আর্নল্ড, টম মুডি, হরভজন সিং এমনকি ড্যারেন স্যামির মতো ক্যারিবিয়ার তারকাও বিশ্বাস করেন না যে, গুণতিলকে ইচ্ছাকৃতভাবে ফিল্ডিংয়ে বাধা সৃষ্টি করেছিলেন। স্যামি তো স্পষ্ট জানালেন, পোলার্ডের বদলে তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যাপ্টেন হলে কখনই আউটের আবেদন করতেন না।

আবার ব্র্যাড হগের মতো কেউ কেউ মনে করছেন যে, শ্রীলঙ্কান তারকা ইচ্ছা করেই ফিল্ডিংয়ে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছেন। তাই তাঁকে আউট ঘোষণার সিদ্ধান্ত যথাযথ। যদিও এক্ষেত্রে পাল্লা ভারি প্রথম দলেরই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক পোলার্ড অবশ্য ম্যাচের শেষে শ্রীলঙ্কান তারকার কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। গুণতিলকে নিজেই জানিয়েছেন যে, ম্যাচের পর পোলার্ড তাঁর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন। NewsWire-কে গুণতিলকে বলেন, ‘ও (পোলার্ড) ক্ষমা চেয়ে নেয়। ম্যাচের শেষে আমার কাছে এসে বলে যে, সেই সময় ঠিকভাবে দেখেনি। পরে ভিডিও দেখে বুঝতে পেরেছে, আমার দোষ ছিল না।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের তরফেও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোলার্ড ও গুণতিলকের ছবি পোস্ট করে জানানো হয় যে, দুই তারকা ম্যাচের শেষে নিজেদের মধ্যে কথা বলেছেন।

উল্লেখ্য, ইচ্ছাকৃতভাবে ফিল্ডিংয়ে বাধা সৃষ্টি করার দায়ে সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে আউট দেওয়া হয় গুণতিলকেকে। ক্রিকেটের পরিভাষায় 'অবস্ট্রক্টিং দ্য ফিল্ড' আউট হয়ে ফিরে যান সিংহলি তারকা।

ইনিংসের ২২তম ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক কায়রন পোলার্ডের প্রথম বল ডিফেন্স করে ক্রিজে়র বাইরে বেরিয়ে পড়েন গুণতিলকে। নন-স্ট্রাইকার পাথুম নিসঙ্কা ততক্ষণে দৌড় শুরু করেছেন। গুণতিলকে নিসঙ্কাকে ফিরে যেতে বলেন এবং বলের দিকে না তাকিয়েই পিছন হেঁটে নিজে ক্রিজে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তবে তিনি ক্রিজে ফেরার সময় বল তাঁর পায়ে লেগে সরে যায়। ফলে বোলার ছাড়াও পয়েন্ট ফিল্ডার দৌড়ে বলের কাঁছে পৌঁছে গেলেও রান-আউট করার কোনও সুযোগ ছিল না তাঁদের কাছে।

পোলার্ড আউটের জন্য আবেদন জানালে ফিল্ড আম্পায়াররা তৃতীয় আম্পায়ারের কোর্টে বল ঠেলে দেন। সেই সঙ্গে সফট সিগন্যালে আউটের ইঙ্গিতও দিতে দেখা যায় ফিল্ড আম্পায়ারকে। তৃতীয় আম্পায়ার রিপ্লে দেখে গুণতিলকেকে আউট ঘোষণা করেন।

বন্ধ করুন