বাংলা নিউজ > ময়দান > জানেন কি ডি’ভিলিয়ার্স আর ডু’প্লেসিসের জন্য ব্যাটিং ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন ডেল স্টেইন?
বাইশ গজে ব্যাট হাতে ডেল স্টেইন (ছবি:গেটি ইমেজ)
বাইশ গজে ব্যাট হাতে ডেল স্টেইন (ছবি:গেটি ইমেজ)

জানেন কি ডি’ভিলিয়ার্স আর ডু’প্লেসিসের জন্য ব্যাটিং ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন ডেল স্টেইন?

  • একটু ভাল ব্যাট করতে পারলে আইপিএলে আরও বেশি অর্থ উপার্জন করতে পারতেন। ব্যাট করতে পারেন না বলে আফসোস করছেন পেস বোলার ডেল স্টেইন।

দক্ষিণ আফ্রিকার ডেল স্টেইন হলেন সর্বকালের অন্যতম সেরা পেস বোলার। সবকটি ফর্ম্যাটে তাঁর রেকর্ডই এর সাক্ষী দেয়। এটি সুইং, গতি, পেস থেকে বাউন্স কিমবা ইয়র্কের মাধ্যমে বিপক্ষকে আটকাতে হবে, সবক্ষেত্রেই এগিয়ে থাকবেন স্টেইন। বিপক্ষের সেরা ব্যাটসম্যানদের সর্বদা কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে ফেলতে পারতেন তিনি। ৯৩টা টেস্টে স্টেইনের শিকার ৪৩৯টি উইকেট। ১২৫টি একদিনের ম্যাচে তিনি নিয়েছেন ১৯৬টি উইকেট। ৪৭ টি-টোয়েন্টিতে ডানহাতি পেস বোলার নিয়েছেন ৬৪টি উইকেট। বল হাতে বাইশ গজে সর্বাধিক সাফল্য পেয়েছেন তিনি। তবু দক্ষিণ আফ্রিকার এই বিশ্ব বিখ্যাত পেস বোলার এখন আক্ষেপ করছেন।

স্টেইন ক্রিকেটের বইতে নিজের নামটি সেরা পেসারদের অধ্যায়ে তুলে রেখেছেন। ক্রিকেটের ইতিহাসে সেরা বোলারদের মধ্যে তাঁর নাম উজ্জ্বল অক্ষরে লেখা রয়েছে। বহু তরুণ প্রতিভাবান বোলার ডেইল স্টেইনকেই অনুকরণ করেন। বহু তরুণ ব্যাটসম্যান হতে এসেও স্টেইনকে দেখে বোলিং-এর প্রেমে পড়ে যান ও ব্যাট ছেড়ে বোলিং করতে শুরু করেন। তবে এবার একেবারে উল্টো কথা জানালেন ডেল স্টেইন। বিশ্বের অন্যতম এই পেস বোলার ব্যাটসম্যান হতে না পারার জন্য বিলাপ করছেন। তিনি ইএসপিএনক্রিকইনফো সঞ্জয় মঞ্জরেকরের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নিজের আক্ষেপের কথা জানিয়েছেন, স্টেইন বলেছেন কেন যে তিনি ব্যাটিংটা করতে পারেন না।   

যদিও তিনি এবি ডি’ভিলিয়ার্স এবং ফাফ ডু’প্লেসিসের পছন্দ পূরণের পরে তিনি নিজের লক্ষ্য পরিবর্তন করেছিলেন। স্টেইন জানিয়েছেন, ‘স্কুলের পড়ার সময় যখন আমি আমার প্রথম অ্যাকাডেমিতে ছিলাম, তখন আমি হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পেয়েছিলাম। প্রায় ছয় মাস, আমি সত্যিই বল করিনি। সুতরাং, আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম আমি ব্যাট করব। আমি তিন নম্বরে ব্যাট করতাম এবং আমার অ্যাকাডেমিতে ব্যাটসম্যান অফ দ্য ইয়ার পেয়েছিলাম। মানে এটি হাস্যকর। এবং তারপরে আমি টাইটানসে যোগ দিতে প্রেটোরিয়াতে যাই। সেখানে পৌঁছে ফাফ(ডু প্লেসিস), এবি(ডি’ভিলিয়ার্স) এর সঙ্গে আমার দেখা হয়। তারপরে আমি আলভিরো পিটারসেনের সাথে অনুশীলন করতে শুরু করি। আমি দ্রুত বুঝতে পেরেছিলাম যে আমি একজন ভাল ব্যাটার, কিন্তু ওরাও ব্যাটিং করত। এবং এরপরে আমি বুঝতে পারি যে, আমায় যদি দক্ষিণ আফ্রিকা বা টাইটানসদেরর হয়ে খেলতে হয় তাহলে আমায় আমার বোলিংয়ের দিকে মনোনিবেশ করতে হবে।’

এরপর স্টোইন জানান, ‘আমি এখনই এটার জন্য বেশ আফসোস করি কারণ আমার মনে হয় আমার গড় ২০এর কাছাকাছি ছিল। এবং যদি আরও একটু ভাল ব্যাট করতে পারতাম তাহলে হয়তো আমি আইপিএলে আরও বেশি অর্থ উপার্জন করতে পারতাম, যদি ক্রিস মরিসের মতো আরও ভাল অলরাউন্ডার হতাম।’

বন্ধ করুন