বাড়ি > ময়দান > ভারতীয় কোচেই আস্থা ইস্টবেঙ্গলের, নতুন প্রশিক্ষকের নাম জানিয়ে দিল লাল-হলুদ শিবির
ফ্রান্সিসকো হোসে ব্রুটো দ্য কোস্তা। ছবি- আইএসএল।
ফ্রান্সিসকো হোসে ব্রুটো দ্য কোস্তা। ছবি- আইএসএল।

ভারতীয় কোচেই আস্থা ইস্টবেঙ্গলের, নতুন প্রশিক্ষকের নাম জানিয়ে দিল লাল-হলুদ শিবির

  • লকডাউনের মাঝেই দল গুছিয়ে নেওয়ার পর এবার কোচের সঙ্গেও চুক্তি সারল শতবর্ষের ইস্টবেঙ্গল।

লকডাউনের মাঝেই একের পর এক ফুটবলারকে জালে তুলে দল গুছিয়ে নিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। এবার তারা নতুন মরশুমের জন্য কোচও ঠিক করে ফেলল। পড়শি ক্লাব যখন মোহনবাগান দিবসের উৎসবে মেতে রয়েছে, ঠিক তথনই নিঃশব্দে নতুন কোচের সঙ্গে চুক্তি সেরে ফেলে লাল-হলুদ শিবির।

ইস্টবেঙ্গলের তরফে সরকারিভাবে জানিয়ে দেওয়া হয় নতুন কোচের নাম। আগামী মরশুমে ইস্টবেঙ্গলকে কোচিং করাবেন ফ্রান্সিসকো হোসে ব্রুটো দ্য কোস্তা। গোয়ান ম্যানেজারের সঙ্গে চুক্তির কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকদের জানিয়ে দেয় লাল-হলুদ শিবির। 

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ইস্টবেঙ্গল নতুন মরশুমের জন্য ভারতীয় ফুটবলারদের একটা শক্তিশালী স্কোয়াড গড়েছে। এবার তারা আস্থা রাখল ভারতীয় কোচেই।

শুরুতে শোনা গিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল স্প্যানিশ কোচ রিভেরাকেই নতুন মরশুমে কোচের পদে রেখে দিতে চলেছে। পরে তাঁর সঙ্গে চুক্তি ছিন্ন করে ক্লাব। এবার রিভেরার স্থলাভিষিক্ত হলেন ফ্রান্সিসকো। যদিও দলের হেড কোচ হবেন কিনা গোয়ান ম্যানেজার, তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যায়। 

ক্লাব লাইসেন্সিংয়ের জন্য প্রো লাইসেন্স রয়েছে এমন কাউকে কোচ করা বাধ্যতামূলক। ফ্রান্সিসকোর দখলে রয়েছে সেই কোচিং লাইসেন্স। পরবর্তী সময়ে বিদেশি কাউকে হেড কোচের পদে বসিয়ে ফ্রান্সিসকোকে সহকারীর দায়িত্ব দেওয়ার সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

গোয়ান ম্যানেজার এর আগে নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেডের সহাকারী কোচের ভূমিকা পালন করেছেন। তাছাড়া আন্তর্জাতিক দলকে কোচিং করানোর অভিজ্ঞতাও রয়েছে তাঁর। মালয়েশিয়ার জাতীয় দলের সহকারী কোচের পদে দেখা গিয়েছে তাঁকে। গোয়ান ম্যানেজার হলেন তৃতীয় ভারতীয়, যিনি বিদেশি কোনও দলকে কোচিং করিয়েছেন। তাঁর আগে নঈমুদ্দিন ও শ্যাম থাপা যথাক্রমে বাংলাদেশ ও নেপালের কোচ নিযুক্ত হয়েছিলেন।

বন্ধ করুন