বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > হৃদযন্ত্রের অবস্থা একেবারেই ভালো নয়, চোখের জলে ফুটবলকে বিদায় জানালেন আগুয়েরো
সার্জিও আগুয়েরো।

হৃদযন্ত্রের অবস্থা একেবারেই ভালো নয়, চোখের জলে ফুটবলকে বিদায় জানালেন আগুয়েরো

  • গত ৩০ অক্টোবর ঘরের মাঠে আলাভেসের বিরুদ্ধে ম্যাচের ৪২ মিনিটে তুলে নিতে হয় আগুয়েরোকে। তখনই জানা যায়, হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে তাঁর।

অক্টোবরের শেষের দিকেই বার্সেলোনার হয়ে ম্যাচ খেলার সময়েই বুকের ব্যথা অনুুভব করেন সার্জিও আগুয়েরো। তার পরে তাঁর পরীক্ষা করা হলে জানা যায়, হৃদযন্ত্রে তাঁর গুরুতর সমস্যা রয়েছে। যে কারণে শেষ পর্যন্ত ফুটবলকে বিদায় জানাতে বাধ্য হলেন আর্জেন্তাইন তারকা। বুধবার বার্সেলোনাতেই এক সাংবাদিক সম্মেলন করে নিজের অবসরের সিদ্ধান্তের কথা জানান আগুয়েরো। আর অবসরের ঘোষণার সময়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ৩৩ বছরের তারকা ফুটবলার।

ম্যাঞ্চেস্টার সিটি থেকে বার্সায় আসার পরে মাত্র পাঁচটি ম্যাচে খেলেছেন আগুয়েরো। করেছেন একটি গোল। কিন্তু অসুস্থতার কারণে ফুটবলকেই চিরবিদায় জানাতে হল বার্সার তারকা ফরোয়ার্ডের। এ দিন ক্যাম্প ন্যু-তে সাংবাদিক সম্মেলনে আগুয়েরো বলছিলেন, ‘আমি ফুটবল খেলা ছেড়ে দিচ্ছি, এটা জানানোর জন্যই এই সাংবাদিক সম্মেলন। আমার জন্য এটি একটি খুবই কঠিন মুহূর্ত। এই সিদ্ধান্তটা আমি নিজের স্বাস্থ্যের কথা ভেবে নিতে বাধ্য হয়েছি। ডাক্তাররা আমাকে বলেছেন, খেলা বন্ধ করাই আমার জন্য ভালো। আমি প্রায় ১০দিন আগেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’

গত ৩০ অক্টোবর ঘরের মাঠে আলাভেসের বিরুদ্ধে ম্যাচের ৪২ মিনিটে তুলে নিতে হয় আগুয়েরোকে। তখনই জানা যায়, হৃদযন্ত্রে সমস্যা রয়েছে তাঁর। ক্যাটালোনিয়ার এক রেডিয়ো চ্যানেল জানায়, প্রথমে যা মনে করা হয়েছিল, সমস্যা তার থেকেও গুরুতর। আগুয়েরো নাকি কার্ডিয়াক অ্যারিথমিয়াতে ভুগছেন, যার ফলে তাঁর ফুটবল-জীবন ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

আলাভেস ম্যাচের পরেই তাঁর ক্লাব বার্সেলোনা জানায়, আগুয়েরোর যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পাশাপাশি তিনি যে তিন মাসের জন্য ছিটকে গিয়েছেন, সেটাও জানানো হয়। সপ্তাহখানেক আগে বার্সেলোনার প্রকাশিত এক ভিডিয়োয় আগুয়েরো জানান যে, তিনি সুস্থই রয়েছেন এবং চিকিৎসাও ভালো ভাবেই চলছে। কিন্তু যত পরীক্ষা করা হচ্ছে, ততই আগুয়েরোর হৃদযন্ত্রের এক একটা সমস্যা সামনে আসছে। যে কারণে ফুটবল ছেড়ে দিতে বাধ্য হন আগুয়েরো।

বন্ধ করুন