বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা খারিজের সুপারিশ করল মার্কিন কোর্ট
ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা খারিজের সুপারিশ করল মার্কিন কোর্ট

  • রোনাল্ডোর তরফে যৌন মিলনের কথা স্বীকার করে নেওয়া হলেও, সাফ জানিয়ে দেওয়া হয় গোটাটাই দু'জনের স্বেচ্ছায় ঘটেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাথলিট এবং মতান্তরে ফুটবলের সর্বকালের সর্বসেরা খেলোয়াড় ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। মাঠে দুরন্ত ফুটবলের পাশপাশি মাঠের বাইরেও রোনাল্ডোর জীবন বরাবরই চর্চায় থাকে। রোনাল্ডোর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিতর্কও কম নেই। তবে দীর্ঘদিনের এক অপবাদ থেকে অবশেষে মুক্তি পেতে চলেছেন রোনাল্ডো। যুক্তরাষ্ট্রের এক মহিলার তাঁর বিরুদ্ধে করা যৌন হেনস্থা ও চুক্তিভঙ্গ করার মামলা খারিজ করা হয়।

২০০৯ সালে এক নাইট ক্লাবে ক্যাথরিন ম্যায়োরগা নামক লাস ভেগাসের এক মহিলার সঙ্গে যৌনমিলনে লিপ্ত হন রোনাল্ডো। ভেগাসের ওই মডেলের সঙ্গে এক নাইট ক্লাবে রোনাল্ডোর সাক্ষাৎ হওয়ার পর তাঁরা দুইজনে হোটেল রুমে গিয়ে যৌনমিলনে লিপ্ত হন। এরপরে ক্যাথরিন রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা আনলে প্রায় তিন লক্ষ ৭৫ হাজার মার্কিন ডলারের বিনিময়ে তার সঙ্গে রোনাল্ডোর উকিলরা বোঝাপড়া করেন। সেই অনুযায়ী এই নিয়ে দুই পক্ষেরই মুখ বন্ধ রাখার কথা ছিল। তবে ২০১৭ সালে জার্মান এক পত্রিকায় রোনাল্ডো ও ম্যায়োরগার এই ঘটনা ফাঁস হওয়ার পরই রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে চুক্তিভাঙার মামলা করেন ওই মহিলা।

প্রথমে স্টেট কোর্ট ও পরে ফেডেরাল কোর্টে সেই মামলা যায়। তবে নেভাডার এক ম্যাজিস্ট্রেট এই মামলা খারিজ করার পরামর্শ দিয়ে উল্টে সেই মহিলার উকিলদেরই তুলোধনা করেন। ব্যক্তিগত ম্যাসেজ ও কিছু লিকড তথ্যের ওপর ভিত্তি করে গোটা মামলা সাজানোয় তিরস্কার করা হয় ম্যায়োরগার উকিলদের। রোনাল্ডোর তরফে আগেই স্বীকার করে নেওয়া হয়েছিল, তিনি ও ম্যায়োরগা যৌন মিলনে লিপ্ত হলেও তা ছিল দুই পক্ষের সম্মতিক্রমেই, সেখানো কোন জোড় জবরদস্তি ছিল না। 

কোর্টও রোনাল্ডোর বিরুদ্ধের অভিযোগের কোন ভরসাযোগ্য প্রমাণ পায়নি। ফলে রোনাল্ডোকে যৌন হেনস্থার দায় থেকে মুক্ত করার পরামর্শ দেয় কোর্ট। বহুদিনের পুরনো এই কেলেঙ্কারি থেকে অব্যাহতি পাওয়ার মুখে নিশ্চয়ই স্বস্তি ফিরে পাবেন রোনাল্ডো।

বন্ধ করুন