বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ISL-এর প্রথম ম্যাচেই সম্ভবত নামতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল, প্রতিপক্ষ হতে পারে কেরালা
ইস্টবেঙ্গল।

ISL-এর প্রথম ম্যাচেই সম্ভবত নামতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল, প্রতিপক্ষ হতে পারে কেরালা

  • আগামী ৭ অক্টোবর আইএসএলের উদ্বোধনী ম্যাচ হবে কোচিতে, যেখানে কেরালার মুখোমুখি হতে পারে ইস্টবেঙ্গল। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই সমস্ত আইএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজিকে তাদের হোম ম্যাচের সূচি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আইএসএলের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল কেরালা ব্লাস্টার্স এবং এটিকে মোহনবাগানের। সেই ম্যাচটি সম্ভবত করা যাচ্ছে না। তার বদলে বাগানের পরিবর্তে প্রথম ম্যাচেই সম্ভবত মাঠে নামতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই সমস্ত আইএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজিকে তাদের হোম ম্যাচের সূচি পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আর আগামী ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হতে চলেছে আসন্ন আইএসএল। ।

আগামী ৭ অক্টোবর আইএসএলের উদ্বোধনী ম্যাচ হবে কোচিতে, যেখানে কেরালার মুখোমুখি হতে পারে ইস্টবেঙ্গল। কিন্তু এটিকে মোহনবাগানকে কেন প্রথম ম্যাচ খেলতে পারবে না? এর পিছনে রয়েছে অবশ্য অন্য কারণ।

আরও পড়ুন: প্রস্তুতির সুযোগ পাইনি, ৬ দিনে ৩ ম্যাচ- ডার্বি হেরে অজস্র অজুহাত EB কোচের

এটিকে মোহনবাগানের এএফসি কাপের সূচির জন্যই সম্ভবত আইএসএলের সূচি বদলাতে হয়েছে।। যেহেতু সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড আগামী ৭ সেপ্টেম্বর এএফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমিফাইনাল খেলবে, এবং প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে আগামী ৫ অক্টোবর এএফসি কাপ ফাইনাল খেলার। যে কারণে আইএসএলের প্রথম কিছু দিন এটিকে মোহনবাগানের ম্যাচ রাখা হয়নি। সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহের মধ্যেই সূচি প্রকাশ করে দিতে পারে এফএসডিএল।

আরও পড়ুন: টানা হাফ ডজন ডার্বি হার লাল-হলুদের, আত্মঘাতী গোলে বাজিমাত বাগানের

এ দিকে ডুরান্ড কাপের নক আউটে পৌঁছানোর সম্ভাবনা ইস্টবেঙ্গলের আর নেই। ডার্বি হেরেই সেই সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে গিয়েছিল। আর সোমবার রাজস্থানকে হারিয়েছে মুম্বই। সেই সঙ্গে এটিকে মোহনবাগান হারাল নেভিকে। ফলে লাল-হলুদ ছিটকে গেল ডুরান্ড কাপ থেকে। কারণ লাল-হলুদ ম্যাচ জিতলেও কোনও ভাবেই ৫ পয়েন্টের বেশি সংগ্রহ করতে পারবে না। যেখানে মুম্বই এবং মোহনবাগানের পয়েন্ট এখনই ৭। তবে এটিকে মোহনবাগানও ডুরান্ডের নক আউটে যাবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।

মুম্বইয়ের শেষ ম্যাচ ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে আগামী শনিবার। রাজস্থান তাদের শেষ ম্যাচ খেলবে দুর্বল নৌসেনার বিরুদ্ধে। মুম্বই যদি ইস্টবেঙ্গলকে হারায় বা তাদের বিরুদ্ধে ড্র করে, তবে গ্রুপ শীর্ষে থেকেই নকআউটে যাবে তারা। দ্বিতীয় সেরা দল হিসেবে পরের পর্বে ওঠার লড়াইয়ে তখন থাকবে এটিকে মোহনবাগান এবং রাজস্থান ইউনাইটেড। দুই দলই যদি তাদের শেষ ম্যাচ জেতে, তা হলে দুই দলের পয়েন্ট হবে ৭। তবে গ্রুপ পর্বে এটিকে মোহনবাগানকে হারানোর সুবাদে নক আউটে উঠবে রাজস্থানই। অর্থাৎ, শুধু নিজেদের ম্যাচ জিতলে হবে না, রাজস্থান নৌসেনাকে হারালে বা তাদের ম্যাচ ড্র হলে তবেই শেষ আটে যাবে এটিকে মোহনবাগান। যে সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

বন্ধ করুন