বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > FIFA bans AIFF: আলোচনায় বরফ গলতে পারে, ফিফার নির্বাসন তুলতে কেন্দ্রকে সক্রিয় পদক্ষেপের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

FIFA bans AIFF: আলোচনায় বরফ গলতে পারে, ফিফার নির্বাসন তুলতে কেন্দ্রকে সক্রিয় পদক্ষেপের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

ফিফার নির্বাসন নিয়ে কেন্দ্রকে পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ শীর্ষ আদালতের।

আলোচনার ফল না জানা পর্যন্ত মুলতুবি রাখা হল শুনানি। ফিফার নির্বাসন নিয়ে নতুন আপডেটে চোখ রাখুন।

শিরে সংক্রান্তি অবস্থায় টানাপোড়েনের রাস্তায় হাঁটতে রাজি নয় সুপ্রিম কোর্ট। ভারতীয় ফুটবলের উপর থেকে ফিফার নির্বাসন তুলে নেওয়া ও অনূর্ধ্ব-১৭ মহিলা বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব ফিরে পাওয়ার জন্য কেন্দ্রকে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিল শীর্ষ আদালত।

ফিফার নির্বাসন সংক্রান্ত বিষয়টি বুধবার শুরুতেই উত্থাপিত হয় বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়, বিচারপতি এএস বোপান্না ও বিচারপতি জেবি পারদিওয়ালার বেঞ্চে। পরিস্থিতির গুরুত্ব অনুধাবন করেই কেন্দ্রকে এবিষয়ে সক্রিয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেয় আদালত।

সলিসিটর জেনারেলের অনুরোধ মতোই শুনানি আপাতত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেন বিচারপতিরা। সলিসিটর জেনারেল সুপ্রিম কোর্টকে জানান যে, নির্বাসন সংক্রান্ত বিষয়টি নিয়ে ফিফার সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের আলোচনা চলছে। আলোচনা চালাচ্ছে ফেডারেশনের আদালত নিযুক্ত কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সও। সুতরাং, সেই আলোচনায় কী ফল হয় তা না জানা পর্যন্ত আদালত যাতে কোনও সিদ্ধান্তে উপনীত না হয়, সেই অনুরোধই করা হয় বিচারপতিদের বেঞ্চের কাছে।

আরও পড়ুন:- UAE T20 লিগে দল গড়া নিয়ে মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গলের মতো লড়াই চলছে MI ও KKR-এর

তুষার মেহতা এক্ষেত্রে আগামী সোমবার পর্যন্ত শুনানি মুলতুবি রাখার অনুরোধ জানান, যা গৃহীত হয়। সলিসিটর জেনারেল জানান, ‘গতকাল সরকার নিজেরাই বিষয়টায় নজর দেয়। ফিফার সঙ্গে আমাদের ২টি মিটিং হয়েছে। আলোচনা একটা পর্যায়ে পৌঁছেছে। এটাও বলতেই হয় যে, কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্স এই আলোচনায় সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছে।’

ফেডারেশনের নির্বাচন নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন যিনি, সেই সিনিয়র অ্যাডভোকেট রাহুল মেহরা আদালতে দাবি করেন, অপসারিত ফেডারেশন কর্তারা পরিকল্পনা মাফিক এমন পরিস্থিতি তৈরি করেছেন। তিনি সরাসরি প্রফুল প্যাটেলের দিতে আঙুল তোলেন এবং আদালতের কাজে বাধা দেওয়ার জন্য কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানান।

আরও পড়ুন:- Kabaddi Player Dies: সামারসল্টের চেষ্টায় মাটিতে আছড়ে মৃত্যু কবাডি খোলায়াড়ের, ছড়িয়ে পড়ল মর্মান্তিক ঘটনার ভিডিয়ো

সিওএ-র তরফে সিনিয়র অ্যাডভোকেট গোপাল শঙ্করনারায়নন আদালতের সামনে ফিফার নির্বাসনের ফলে উদ্ভুত পরিস্থিতি তুলে ধরেন। তিনি জানান যে, গোকুলাম কেরালা এফসির মহিলা দল উজবেকিস্তানে খেলতে গিয়েও এখনও নিশ্চিত নয় মাঠে নামতে পারবে কিনা। এটিকে-মোহনবাগানের এএফসি টুর্নামেন্টে মাঠে নামা নিয়ে তৈরি হওয়া সংশের কথাও জানানো হয় শীর্ষ আদালতে।

বন্ধ করুন