বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > উদ্বোধনী ম্যাচেই দুরন্ত ছন্দে ইতালি, ৩-০ উড়িয়ে দিল তুরস্ককে
গোলের উচ্ছ্বাস লরেঞ্জো ইনসিগনে। ছবি: রয়টার্স
গোলের উচ্ছ্বাস লরেঞ্জো ইনসিগনে। ছবি: রয়টার্স

উদ্বোধনী ম্যাচেই দুরন্ত ছন্দে ইতালি, ৩-০ উড়িয়ে দিল তুরস্ককে

  • ম্যাচের শুরু থেকেই রবার্তো মানচিনির ছেলেরাই বলের দখল রেখেছিল। তুরস্ক শুধু দশ জন মিলে রক্ষণ সামলে গেল।

ইউরোর শুরুটাই এ বার অসাধারণ ছন্দে করল ইতালি। এই প্রথম ইউরোতে ৩ গোল করল আজুরিরা। পাশাপাশি তুরস্ককে ৩-০ হারিয়ে টানা নয় ম্যাচে জেতার রেকর্ডটাও ধরে রাখল। এর আগে ইতালির টানা দশ ম্যাচে জেতার রেকর্ড রয়েছে। সব মিলিয়ে ঠিক যেমন উদ্বোধনী ম্যাচের শুরুটা হওয়া উচিত, ঠিক সে ভাবেই করল ইতালি।

ভারতীয় সময়ে শুক্রবার গভীর রাতে ইউরোর উদ্বোধনী ম্যাচের রেজাল্ট অপ্রত্যাশিত কিছু হয়নি। ম্যাচের শুরু থেকেই রবার্তো মানচিনির ছেলেরাই বলের দখল রেখেছিল। তুরস্ক শুধু দশ জন মিলে রক্ষণ সামলে গেল। তাও যদি ঠিক করে রক্ষণটাও তারা সামলাতে পারতো। প্রথমার্ধ তাও কোনও মতে ইতালির আক্রমণ প্রতিহত করে ম্যাচ গোলশূন্য রাখতে পেরেছিল তুরস্ক। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ইতালির দাপটে তারা কার্যত কোণঠাঁসা হয়ে পড়ে।

বিরতির পর খেলা শুরু হতেই আক্রমণের ঝড় তোলে ইতালি। সেই ঝড় সামলাতে গিয়েই তুরস্কের মেরিহ দেমিরালে আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় মানচিনির দল। তারপর ব্যবধান বাড়াতে সময় লাগেনি ইতালির। ৬৬ মিনিটে সিরো ইমোবাইলের গোলটিও হয় তুরস্কের ডিফেন্সের দোষেই। কার্যত দর্শকের মতোই দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে গোল দেখছিলেন তুরস্কের ডিফেন্ডাররা। এর ১৩ মিনিট পরেই ৩-০ করেন লরেঞ্জো ইনসিগনে। তুরস্ক আক্রমণেই ওঠেনি, তাই গোলশোধের কোনও বিষয় ছিল না।

ইতালির কাছে জয় অধরাই রয়ে গিয়েছে তুরস্কের। পরিসংখ্যান বলছে, ১১টি ম্যাচে ইতালির মুখোমুখি হয়েছে তুরস্ক। ৮টি ম্যাচেই তারা হেরেছে।

বন্ধ করুন