বাংলা নিউজ > ময়দান > বাংলার জিমন্যাস্ট প্রণতি নায়েকের হাতে আসছে টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট!
টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট পেলেন প্রণতি (ছবি: গুগল)
টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট পেলেন প্রণতি (ছবি: গুগল)

বাংলার জিমন্যাস্ট প্রণতি নায়েকের হাতে আসছে টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট!

  • আগামী ২৯ মে থেকে চিনের হ্যাংঝৌতে সিনিয়র এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে সেই প্রতিযোগিতা বাতিল হয়ে যায়। এবং এরপর কোটার বিচারে প্রতিযোগীদের অলিম্পিক্সের টিকিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই নিয়মের ফলেই এবারের টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট পেলেন বাংলার জিমন্যাস্ট প্রণতি নায়েক।

মহাদেশীয় কোটার মাধ্যমে টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট পাকা করলেন বাংলার জিমন্যাস্ট প্রণতি নায়েক। এশিয়া কোটার বিচারে শ্রীলঙ্কার এলপিতিয়া বাদালগের পিছনে রয়েছেন প্রণতি। আগামী ২৯ মে থেকে চিনের হ্যাংঝৌতে সিনিয়র এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনার কারণে সেই প্রতিযোগিতা বাতিল হয়ে যায়। এবং এরপর কোটার বিচারে প্রতিযোগীদের অলিম্পিক্সের টিকিট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই নিয়মের ফলেই এবারের টোকিও অলিম্পিক্সের টিকিট পেলেন বাংলার জিমন্যাস্ট প্রণতি নায়েক। 

প্রণতি নায়েক হলেন পশ্চিমবঙ্গের ঝাড়গ্রামের এক সাধারণ পরিবারের একটি মেয়ে। প্রণতির বাবা একজন বাস ড্রাইভার। ঝাড়গ্রাম থেকে উঠে এসে যেভাবে প্রণতি নিজের স্বপ্নকে বাস্তবরূপ দিতে চলেছেন, তাতে প্রণতির সাফল্যকে কুর্নিশ করতেই হয়। 

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরে খুশি ও আপ্লুত প্রণতি। তিনি জানিয়েছেন, ‘২০১৯-এর বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে যোগ্যতা মান অর্জন করতে না পারায় প্রচণ্ড হতাশ হয়েছিলাম। অতিমারির কারণে একের পর এক প্রতিযোগিতা বাতিল হওয়ায় কোনওদিন ভাবিনি অলিম্পিক্সে যাওয়ার স্বপ্ন পূরণ হবে। এখন এশিয়া বা বিশ্ব সংস্থার তরফে সরকারি ভাবে খবর পাওয়ার অপেক্ষা করছি।’

এই খবরের পরে প্রণতিকে শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রণতির শুভেচ্ছায় নানা বার্তা দেওয়া হয়।

এবার সাইয়ের কাছে আবদার করা হয়, প্রণতির জন্য যেন এবার সাইয়ের দরজা খুলে দেওয়া হয়। তবে টোকিও অলিম্পিক্সের প্রস্তুতির জন্য বেশি সময় হাতে পাবেননা প্রণতি। তবে এখনও প্রণতির কাছে আন্তর্জাতিক জিমন্যাস্ট পেডারেশন থেকে কোনও সরকারি চিঠি এসে পৌঁছায়নি। এই চিঠির অপেক্ষায় রয়েছেন প্রণতি।

বন্ধ করুন