বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > সবাই মিলে হাসান আলির ওপর হামলে পড়বেন না, পাকিস্তানিদের কাছে আকুতি আক্রমের
হাসান আলির পাশে দাঁড়ালেন ওয়াসিম আক্রাম (ছবি:টুইটার)
হাসান আলির পাশে দাঁড়ালেন ওয়াসিম আক্রাম (ছবি:টুইটার)

সবাই মিলে হাসান আলির ওপর হামলে পড়বেন না, পাকিস্তানিদের কাছে আকুতি আক্রমের

  • সেমিফাইনালে দলের পরাজয়ে বড় ধরনের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন বোলার ওয়াসিম আক্রম। তিনি হাসান আলিকে পূর্ণ সমর্থন করেছেন। ওয়াসিম আক্রামের মতে, এই সময়ে হাসান আলির পূর্ণ সমর্থন প্রয়োজন। ক্যাচ মিস নিয়ে হাসান আলির পাশে দাঁড়ালেন তারকা পেসার ওয়াসিম আক্রাম। 

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে ম্যাথু ওয়েডের ক্যাচ ফেলে সমালোচনার মুখে পড়ে গিয়েছেন হাসান আলি। দেশ ও দেশের বাইরে সমর্থক ও সমালোচকদের কড়া আলোচনায় রয়েছেন হাসান আলি। ম্যাচের এমন সময়ে তিনি ক্যাচ ফেলেছিলেন যে সেখান থেকে ম্যাচের পুরো গতি প্রকৃতি বদলে দেয়। এরপরে ম্যাথু ওয়েড দুরন্ত ক্রিকেট খেলে, শাহিন আফ্রিদির বলে তিনটি ছক্কা হাঁকিয়ে পাকিস্তানের বিজয় রথ থামিয়ে দেয়।  

সেমিফাইনালে দলের পরাজয়ে বড় ধরনের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন বোলার ওয়াসিম আক্রম। তিনি হাসান আলিকে পূর্ণ সমর্থন করেছেন। ওয়াসিম আক্রামের মতে, এই সময়ে হাসান আলির পূর্ণ সমর্থন প্রয়োজন। তিনি বলেছেন, এই সময়ে হাসান আলিকে সমর্থন করতে পুরো দেশকে একত্রিত হতে হবে। ওয়াসিম আক্রম বলেন, ‘এই সময়ে সারা দেশ হাসান আলির পেছনে লেগে থাকাটা আমার ভালো লাগে না। আমিও এই পর্যায় পার হয়েছি এবং ওয়াকার ইউনিসও এই পর্যায় পার করেছেন। অন্যান্য দেশে এটি মানুষের জন্য একটি খেলা মাত্র। সেখানে লোকে বলে খুব ভালো প্রচেষ্টা। পরের বার আরও ভালো প্রস্তুতি নিয়ে আসুন।’

১৭৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে, অস্ট্রেলিয়ান দলের শেষ দুই ওভারে ২২ রান প্রয়োজন এবং ১৯তম ওভারে পাকিস্তানের এক নম্বর বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি বল করতে আসেন। আফ্রিদি তার কাজ প্রায় করে ফেলেছিলেন। বড় শট খেলার প্রক্রিয়ায় বল আকাশে মারলেও বাউন্ডারি লাইনে তার ক্যাচ ফেলে দেন হাসান আলি। এই ক্যাচটি পাকিস্তানকে অনেক মূল্য দিতে হয়েছে। পরের তিন বলে টানা তিন ছক্কা মেরে পাকিস্তানকে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দেন ওয়েড। এই নিয়ে ওয়াসিম আক্রম আরও বলেন, ‘এই পরিস্থিতি খেলোয়াড়দের জন্য যতটা কঠিন, ততটাই সমর্থকদের জন্য। খেলোয়াড়রা তাদের ঘরে যাবে, তারা শান্ত থাকবে, তারা তাদের পরিবারের সাথে কথা বলবে না এবং পরাজয় তাদের তাড়িত করবে। একটি জাতি হিসাবে, আমরা সেই জ্বালানীতে আগুন যোগ করতে চাই না।’

বন্ধ করুন