দীপা মালিক। ছবি- টুইটার।
দীপা মালিক। ছবি- টুইটার।

অবসর নেওয়ার দিনেই সর্বভারতীয় সংস্থার প্রশাসক হিসেবে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করলেন প্যারালিম্পিক পদকজয়ী দীপা

  • গত বছর দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়া সম্মান রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কারে ভূষিত হন তারকা প্যারা-অ্যাথলিট।

অবসর ঘোষণা করলেন রিও প্যারালিম্পিকে রুপো জয়ী তারকা প্যারা-অ্যাথলিট দীপা মালিক। খেলা ছাড়ার দিনেই প্রশাসক হিসেবে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করলেন খেলরত্ন পুরস্কারে ভূষিত তারকা। প্যারালিম্পিক কমিটি অফ ইন্ডিয়ার নতুন সভাপতি হলেন তিনি।

সর্বভারতীয় প্যারালিম্পিক সংস্থার সভাপতি পদে বসতে হলে অবসর নিতেই হতো দীপা মালিককে। কেননা ন্যাশনাল স্পোর্টস কোড অনুযায়ী কোনও জাতীয় ক্রীড়া সংস্থার প্রশাসক নির্বাচিত হতে গেলে খেলা ছেড়ে দেওয়া বাধ্যতামূলক।

দীপা জানান, ‘নির্বাচনের জন্য খেলা ছাড়ছি এই মর্মে চিঠি আগেই জমা দিয়েছি PCI-এর কাছে। অপেক্ষা করছিলাম আদালত দ্বারা নতুন কমিটির অনুমোদনের। নিয়ম অনুযায়ী আমাকে জনসম্মুখে ঘোষণা করতে হতো অবসর নেওয়ার কথা। এখন সময় এসেছে প্যারা স্পোর্টসকে কিছু ফিরিয়ে দেওয়ার। সময় এসেছে বাকিদের সাফল্যের জন্য তাদের সমর্থন করার।’

দীপা মালিকই প্রথম ভারতীয় মহিলা, যিনি প্যারালিম্পিকে পদক জেতেন। ২০১৬ রিও প্যারালিম্পিকের শট পাটে রুপো জেতেন তিনি। দীপা একাধিক প্যারা স্পোর্টসের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ২০১৮-য় দুবাইয়ে প্যারা অ্যাথলেটিক গ্রাঁ-প্রি'র এফ-৫৩/৫৪ বিভাগের জ্যাভলিন থ্রো-এ সোনা জেতেন তিনি।

গতবছর দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়া সম্মান রাজীব গান্ধী খেলরত্ন পুরস্কারে সম্মানিত করা হয় দীপাকে। তিনি দ্বিতীয় প্যারাথলিট, যাঁর হাতে রাজীব গান্ধী খেলরত্ন উঠেছে। তাঁর আগে ২০১৭ সালে জ্যাভলিন থ্রোয়ার দেবেন্দ্র ঝাঝারিয়া এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।

এর আগে ২০১২ সালে অর্জুন পুরস্কার পান দীপা। ২০১৭ সালে পদ্মশ্রী পুরস্কারে সম্মানিত করা হয় তারকা প্যারা-অ্যাথলিটকে। ৪৯ বছর বয়সী দীপার দখলে রয়েছে ৫৮টি জাতীয় ও ২৩টি আন্তর্জাতিক পদক।

বন্ধ করুন