কিং কোহলি মানেই রান মেশিন। এটাই ছিল রীতি। কিন্তু আচমকাই কিছু ম্যাচ ধরে স্বাভাবিক ছন্দ পাচ্ছেন না ক্যাপ্টেন কোহলি। ওডিআই সিরিজে ব্যর্থ হওয়ার পর ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিরুদ্ধে টেস্টের প্রথম ইনিংসেও অল্প রানে আউট হলেন ভারতীয় অধিনায়ক।

এদিন মাত্র দুই রান করে নবাগত কাইল জেমিসনের বলে আউট হন তিনি। স্লিপে রস টেলরকে ক্যাচ দিয়ে সাত বলেই প্যাভিলিয়নের পথে যান কোহলি। এর আগে তিনটি ওডিআইতে ৭৫ রান করেছিলেন সবমিলিয়ে। প্রসঙ্গত তিনটি ম্যাচেই হার হয় ভারতের।

গত ১৯ ইনিংসে সেঞ্চুরি নেই কোহলির। শেষ পিঙ্ক বল টেস্টে তিনি সেঞ্চুরি করেছিলেন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইডেন উদ্যানে। তবে এই প্রথম নয়, এর আগে ফেব্রুয়ারি থেকে অক্টোবর ২০১৪-এর মধ্যে ২৫টি ইনিংসে কোনও শতরান করেননি কোহলি। এর মধ্যে ছিল অভিশপ্ত ইংল্যান্ড সিরিজ, যেটি কোহলির ক্রিকেটিয় জীবনে অন্যতম এক খারাপ অধ্যায়। সেখানে পাঁচ টেস্টে মাত্র ১৩৪ রান করেছিলেন তিনি।

এর আগে ফেব্রুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর ২০১১-র মধ্যে কোনও সেঞ্চুরি করতে পারেননি তিনি। ২৪ ইনিংস শতরানের মুখ না দেখার পর অবশেষে সেই ধারা ভঙ্গ করেন তিনি। কেরিয়ারে মোট ৭০টি একশো করেছেন তিনি। এরমধ্যে ৪৩টি ওডিআইতে ও ২৭টি টেস্টে।

এমন নয় যে কোহলি খুব খারাপ ফর্মে আছেন। তিনি আউট হয়ে যাচ্ছেন কোনও না কোনও ভাবে। তবে কোহলি বলেই প্রত্যাশার পারদটি সর্বদা তুঙ্গে। চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটারের মতো দ্রুত যে খরা কাটিয়ে ফের সেঞ্চুরির ফুল ফোটাবেন কোহলি, একটি বিরাট ইনিংস উপহার দেবেন তার আপামর ভক্তকূলকে, সেটি হলফ করে বলাই যায়।


বন্ধ করুন