বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2021 > IPL-এর নতুন দু'টি দল নির্বাচন করতে ছ'টি হিন্দিভাষী শহরকে তালিকায় রাখল BCCI
২০২২ দল দশ দলে আইপিএল হবে।
২০২২ দল দশ দলে আইপিএল হবে।

IPL-এর নতুন দু'টি দল নির্বাচন করতে ছ'টি হিন্দিভাষী শহরকে তালিকায় রাখল BCCI

  • ৮ দলের পরিবর্তে ১০ দল নিয়ে ২০২২ আইপিএল অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। নতুন দলের বেসপ্রাইস প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা ধার্য করা হয়েছে। আগে নতুন দলের বেসপ্রাইস ধার্য করা হয়েছিল ১৭০০ কোটি টাকা। সেই মূল্য বাড়িয়ে ২ হাজার কোটি টাকা করা হয়েছে।  

২০২২ আইপিএলে নতুন দু'টি দল কারা হবে? এই নিয়ে তীব্র জল্পনা চলছে। একটি বিবৃতিতে থেকে জানা গিয়েছে, নতুন দু'টো আইপিএলের টিম হিসেবে বিসিসিআই চাইছে হিন্দীভাষী দু'টি শহরকে। 

ভারতের ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা যে চূড়ান্ত তালিকা বেছে নিয়েছে, তাতে ছ'টি শহর রয়েছে। এবং সেই শহরগুলো প্রত্যেকটাই হিন্দিভাষী। এই ছয় শহরের মধ্যে রয়েছে গোয়াহাটি, রাঁচি, কটক, আহমেদাবাদ, লখনৌ এবং ধরমশালা। বিসিসিআই ইতিমধ্যে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দু'টি নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি দলের জন্য দরপত্র আহ্বান করেছে।

দরপত্র জমা দেওয়ার জন্য ১০ লক্ষ টাকা লাগবে। ৫ অক্টোবর পর্যন্ত এই দরপত্র জমা দেওয়া যাবে। আর অক্টোবরের মাঝামাঝি জানিয়ে দেওয়া হবে, কারা নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি টিম তৈরি করার জন্য মনোনীত হয়েছে।

নতুন দলের বেসপ্রাইস প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা ধার্য করা হয়েছে। আগে নতুন দলের বেসপ্রাইস ধার্য করা হয়েছিল ১৭০০ কোটি টাকা। সেই মূল্য বাড়িয়ে ২ হাজার কোটি টাকা করা হয়েছে। যে সংস্থা বার্ষিক ৩ হাজার কোটি টাকা বা তার বেশি আর্থিক লেনদেন করে থাকে, একমাত্র তারাই আইপিএলের দল কেনার জন্য বিডে অংশ নিতে পারবে।

বিসিসিআই সূত্রের খবর, ২০২২ সালে আহমেদাবাদের নামে একটি দলের অন্তর্ভূক্তি ঘটতে চলেছে। দ্বিতীয় দল হিসেবে পুনে ও লখনৌয়ের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। এর আগে অবশ্য রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্ট নামে পুনেরই একটি দল আইপিএলে অংশ নিয়েছিল। সেই দলের কর্ণধার ছিলেন সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। এ বারও নাকি তিনি বিডে অংশ নিতে পারেন বলে খবর। আর আহমেদাবাদের মালিকানা পেতে আগ্রহী শিল্পপতি গৌতম আদানি। যদিও এই নিয়ে চূড়ান্ত কিছু জানা যায়নি।

দু'টি নতুন দল বিক্রি করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড পাঁচ হাজার কোটি টাকারও বেশি রোজগার করতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। বিসিসিআইয়ের সাম্প্রতিক গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে এ ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়।

আগামী মরশুমে ম্যাচের সংখ্যা নক আউট মিলিয়ে ৬০ থেকে বেড়ে ৭৪ হতে চলেছে। তবে কোন ফর্ম্যাটে খেলা হবে টুর্নামেন্ট, সে ব্যাপারে এখনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

বন্ধ করুন