বাংলা নিউজ > ময়দান > পাকিস্তানকে খুন করল নিউজিল্যান্ড, দাবি ক্ষুব্ধ শোয়েবের, ক্ষোভ উগড়ালেন আফ্রিদি
শোয়েব আখতার এবং শহিদ আফ্রিদি।
শোয়েব আখতার এবং শহিদ আফ্রিদি।

পাকিস্তানকে খুন করল নিউজিল্যান্ড, দাবি ক্ষুব্ধ শোয়েবের, ক্ষোভ উগড়ালেন আফ্রিদি

  • ক্রাইস্টচার্চ হামলার উদাহরণ টেনে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন শোয়েব আখতার। ক্ষুব্ধ শহিদ আফ্রিদিও। নিউজিল্যান্ড সিরিজ বাতিল করা নিয়ে তীব্র সমালোচনা পাক ক্রিকেট মহলের।

বহু দিন পর পাকিস্তানের ২২ গজে উন্মাদনার ছোঁয়া লেগেছিল। কিন্তু উত্তাপ বাড়ার আগেই এক ঝোড়ো হাওয়ায় সব আবার আগের মতোই বর্ণহীন হয়ে পড়ল। ফের পাকিস্তানের মাটিতে ক্রিকেট আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তার বাতাবরণ। যার জেরে নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তান সিরিজ বাতিল হয়ে গেল। আর এই ঘটনার পরেই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করলেন শোয়েব আখতার, শাহিদ আফ্রিদিরা।

সবই ঠিকঠাক চলছিল। ১৮ বছর পর পাকিস্তানের ২২ গজে খেলতে নামছিল নিউজিল্যান্ড। কিন্তু শুক্রবার সকাল থেকে হঠাৎ করেই নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কার মেঘ ঘনীভূত হয়। তার জেরেই খেলা শুরুর ঠিক আগের মুহূর্তেই বাতিল হয়ে গেল নিউজিল্যান্ড-পাকিস্তানের সংক্ষিপ্ত ওভারের পুরো সিরিজটাই। সিরিজে এক বলও খেলা হয়নি। যদিও নিরাপত্তা নিয়ে আশ্বস্ত করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ব্যক্তিগত ভাবে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডের্নের সঙ্গে কথা বলেন। কিন্তু তাতে কোনও লাভই হয়নি। তাদের দেশের ক্রিকেটারদের নিরাপত্তা নিয়ে আশঙ্কিত হয়ে পুরো টিমকেই ফিরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড সরকার।

প্রাক্তন পাক পেসার শোয়েব আখতার ক্ষোভ প্রকাশ করে নিজের টুইটারে লিখেছেন, ‘নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান ক্রিকেটকে কার্যত খুন করল।’ আরও একটি টুইটারে লিখেছেন, ‘এই ক্ষেত্রে কিছু জিনিস নিউজিল্যান্ডকে মনে করিয়ে দেওয়া উচিত। ক্রাইস্টচার্চ হামলায় (২০১৯ সালে বাংলাদেশ দলের নিউজিল্যান্ড সফরের সময়) ৯ জন পাকিস্তানি মারা গিয়েছিলেন। তখনও পাকিস্তান পুরো পুরি কিন্তু নিউজিল্যান্ডের পাশে ছিল। কোভিডের সময়েও নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান। অথচ এই সফর নিয়ে নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষ চরম খারাপ আচরণ করল।’

ক্ষুব্ধ শহিদ আফ্রিদি আবার লিখেছেন, ‘নিরাপত্তা নিয়ে যাবতীয় নিশ্চয়তা থাকা সত্ত্বেও একটা ভুয়ো হুমকি পেয়ে নিউজিল্যান্ড পাক সফর বাতিল করল! ব্ল্যাকক্যাপস কি বুঝতে পারছে এই সিদ্ধান্তের প্রভাব ঠিক কী রকম হবে?’

এমন কী এই ঘটনার প্রভাব পড়ল পাকিস্তান-ইংল্যান্ড সিরিজেও। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঠিক আগে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে রাওলপিণ্ডিতে দু'টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা ছিল ইংল্যান্ডের। সেখান থেকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে চলে যেত ইয়ন মর্গ্যানের টিম। শুধু ছেলেদের দলই নয়, ইংল্যান্ডের মেয়েদের টিমেরও পাকিস্তান এসে একই সময়ে টি-টোয়েন্টি এবং তার পর একদিনের সিরিজ খেলার কথা ছিল। তবে নিউজিল্যান্ডের ঘটনাটির পর ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড জানিয়ে দিয়েছে, পাকিস্তানে সিরিজ খেলতে যাওয়ার বিষয়ে তারা পর্যালোচনা করবে, তার পর ২৪-৪৮ ঘণ্টা পরে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের কথা জানাবে।

বন্ধ করুন