আইপিএলের প্রস্তুতিতে ধোনি। ছবি- পিটিআই। (PTI)
আইপিএলের প্রস্তুতিতে ধোনি। ছবি- পিটিআই। (PTI)

ধোনিকে এড়িয়ে যাওয়াই ভালো, উপলব্ধি কিউয়ি পেসারের

  • মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান ধোনির প্রসঙ্গে সংক্ষিপ্ত যে মন্তব্য করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, তাতেই প্রমাণিত বোলারদের কাছে ব্যাটসম্যান মাহি কতটা আতঙ্কের।

নিজের দিনে যে কোনও বোলারের ত্রাস হয়ে দেখা দেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। নতুন শতকে বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিনিশার হিসেবেই নয়, ধোনি বিবেচিত হন ধ্বংসাত্মক ব্যাটসম্যান হিসেবেও। ধোনির ব্যাটিংয়ে দর্শক মনোরঞ্জনের উপকরণ থাকলেও ক্রিজে মাহির উপস্থিতি প্রতিপক্ষ বোলারদের কাছে কতটা আপ্রীতিকর, সেটা বোঝা গেল আরেকবার।

কিউয়ি পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান ধোনির প্রসঙ্গে সংক্ষিপ্ত যে মন্তব্য করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, তাতেই প্রমাণিত বোলারদের কাছে ব্যাটসম্যান মাহি কতটা আতঙ্কের।

পাকিস্তান সুপার লিগ মাঝপথে স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর দেশে ফিরে হোম কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন ম্যাকক্লেনাঘান। অখণ্ড অবসরে অনুরাগীদের সঙ্গে টুইটারে এক প্রশ্নোত্তর পর্বে মুখোমুখি হয়েছিলেন কিউয়ি তারকা। সেখানেই এক অনুরাগী ধোনি সম্পর্কে তাঁর মনোভাব জানতে চান। ম্যাকক্লেনাঘান একটি বাক্যে জানান, 'ওকে বল না করাই ভালো।'

আইপিএল হোক অথবা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, বাইশগজে বহু বার ধোনির মুখোমুখি হতে হয়েছে ম্যাকক্লেনাঘানকে। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই কিউয়ি পেসারের উপলব্ধি ধোনিকে বোলিং করা কতটা কঠিন।

ধোনি অবশ্য গত বিশ্বকাপের পর থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে। প্রস্তুতি শুরু করেছিলেন আইপিএলের জন্য। তবে করোনা ভাইরাসের জেরে আপাতত অনিশ্চিত আইপিএলের ভবিষ্যৎ। এই অবস্থায় মাহির ব্যাট হাতে আমার মাঠে ফেরার সম্ভাবনা নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা।

ক'দিন আগেই টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক সুনীল গাভাসকর জানিয়েছেন যে, তিনি আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের দলে ধোনিকে দেখতে চাইবেন। তবে সেটা আদৌ সম্ভব হবে কি না সন্দেহ। কারণ ভারতীয় দলে আপাতত ধোনির জায়গা ফিরে পাওয়া কঠিন। সানি এও মনে করেন যে, ধোনি সম্ভবত নিঃশব্দে বিদায় নেবেন বাইশগজ থেকে।

বন্ধ করুন