বাংলা নিউজ > ময়দান > 'ওর কথা ভাবলেই মুখ হাসিতে ভরে গিয়েছে', রউফের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ রামিজ রাজা
আসাদ রউফের স্মৃতিতে হৃদয়স্পর্শী বার্তা পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজার

'ওর কথা ভাবলেই মুখ হাসিতে ভরে গিয়েছে', রউফের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ রামিজ রাজা

  • আসাদ রউফের মৃত্যুর খবর চাউর হতেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে আসতে শুরু করে একাধিক বার্তা। সেই দলেই যোগ দেন পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা। তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এক হৃদয়স্পর্শী বার্তা দেন।

শুভব্রত মুখার্জি: বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা আম্পায়র আসাদ রউফ মাত্র ৬৬ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। আজ সকালেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন পাকিস্তানের একদা আইসিসির এলিট লিস্টভুক্ত আম্পায়র আসাদ রউফ। তার মৃত্যুর পর তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধা জানিয়ে এক হৃদয়স্পর্শী বার্তা দিয়েছেন পিসিবির চেয়ারম্যান রামিজ রাজা।

আসাদ রউফের মৃত্যুর খবর চাউর হতেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার স্মৃতির উদ্দেশ্যে আসতে শুরু করে একাধিক বার্তা। সেই দলেই যোগ দেন পিসিবি চেয়ারম্যান রামিজ রাজা। তিনি নিজের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এক হৃদয়স্পর্শী বার্তা দেন। রাজা লেখেন 'আসাদ রউফের মৃত্যুর খবর অত্যন্ত দুঃখজনক। ও অত্যন্ত ভালো একজন আম্পায়র ছিল। পাশাপাশি ওর 'সেন্স অফ হিউমার 'ও ছিল দুর্দান্ত। ও সবসময় আমার মুখে হাসি ফোটাত। আমি যখনই ওর কথা মনে করেছি আমার মুখ সবসময় হাসিতে ভরে গিয়েছে। এই এতবড় ক্ষতির দিনে ওর পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা।'

রামিজ রাজার পাশাপাশি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রাক্তন কিপার ব্যাটার কামরান আকমলও। তিনি লিখেছেন 'প্রাক্তন আইসিসি আম্পায়র আসাদ রউফের মৃত্যুর বিষয়ে জানতে পারাটা দুঃখজনক। আমি আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করছি ওর পরিবারকে এই মুহূর্তকে লড়ার শক্তি দেওয়ার বিষয়ে। পিসিবির তরফে টুইট করে জানানো হয়েছে 'আইসিসির এলিট প্যানেলের আম্পায়র এবং প্রাক্তন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটার আসাদ রউফের মৃত্যুতে দুঃখপ্রকাশ করছি আমরা। আসাদ ৭১টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছে। পাশাপাশি ১৭০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচেও আম্পায়রিং করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে ২০০৭ এবং ২০১১ সালের বিশ্বকাপের ম্যাচও।'

প্রসঙ্গত আইসিসির হয়ে ৬৪টি টেস্টে আম্পায়রিং করেছেন আসাদ। যার মধ্যে ৪৯টি ম্যাচে তিনি ছিলেন অন ফিল্ড আম্পায়র এবং ১৫টি ম্যাচে ছিলেন থার্ড আম্পায়র। ১৩৯টি ওয়ানডে ম্যাচেও আম্পায়রিং করেছেন তিনি। যার মধ্যে ৯৮ টি ক্ষেত্রে অনফিল্ড আম্পায়র এবং ৪১টি ক্ষেত্রে ছিলেন থার্ড আম্পায়র। পাশাপাশি ২৮টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচেও আম্পায়রিং করেছেন তিনি। যেখানে রয়েছে ২৩টি অন ফিল্ড আম্পায়র হিসেবে ম্যাচ। ৫টি ম্যাচ তিনি ছিলেন থার্ড আম্পায়র হিসেবে।

বন্ধ করুন