বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > Tokyo 2020: সিন্ধুর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত অভিনব বিন্দ্রা, লিখলেন খোলা চিঠি
অভিনব বিন্দ্রা এবং পিভি সিন্ধু।
অভিনব বিন্দ্রা এবং পিভি সিন্ধু।

Tokyo 2020: সিন্ধুর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত অভিনব বিন্দ্রা, লিখলেন খোলা চিঠি

  • পিভি সিন্ধু ভারতের প্রথম মহিলা প্লেয়ার, যিনি অলিম্পিক্সে জোড়া পদক পেলেন। এমনিতে মোট ৬ জন ভারতীয় মহিলা প্লেয়ার অলিম্পিক্সে পদক জিতেছেন। কিন্তু জোড়া পদক সিন্ধু ছাড়া আর কারও নেই।

রবিবার অলিম্পিক্সের মঞ্চে নতুন ইতিহাস গড়লেন পিভি সিন্ধু। ব্রোঞ্জ জিতে নজির গড়ে ফেললেন হায়দরাবাদী সুন্দরী। আর তাঁর এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত অলিম্পিক্সে সোনা জয়ী তারকা অভিনব বিন্দ্রা। সিন্ধুর ব্রোঞ্জ জয়ের পর তাঁর উদ্দেশ্যে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন ভারতের তারকা এই শুটার। সেই চিঠি টুইটারে পোস্ট করে ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘শুভেচ্ছা পিভি সিন্ধু! তুমি আমাদের অনেক বেশি গর্বিত করেছো!!!’

চিঠিতে অভিনব বিন্দ্রা লিখেছেন, ‘ডিয়ার সিন্ধু তোমাকে অনেক শুভেচ্ছা টোকিও অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ জয়ের জন্য। তুমি যে সাফল্য অর্জন করেছো, সে রকম সাফল্য পেয়েছে, ভারতের এমন অ্যাথলিটের সংখ্যা খুবই কম। ক্রীড়াক্ষেত্রে বহু অ্যাথলিট রয়েছে, পদক জয়ের স্বপ্ন নিয়েই যাঁদের ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। কিন্তু তুমি এই বিরল সাফল্য অর্জন করেছো। ইতিমধ্যে তোমার অলিম্পিক্সে দু'টি পদক হয়ে গেল।’ এই চিঠিতে তিনি আরও লিখেছেন, ‘পরের জেনারেশনের অ্যাথলিটরা ভাগ্যবান যে তোমার মতো রোল মডেল পেয়েছে।’

পিভি সিন্ধু ভারতের প্রথম মহিলা প্লেয়ার, যিনি অলিম্পিক্সে জোড়া পদক পেলেন। এমনিতে মোট ৬ জন ভারতীয় মহিলা প্লেয়ার অলিম্পিক্সে পদক জিতেছেন। কিন্তু জোড়া পদক সিন্ধু ছাড়া আর কারও নেই।

ভারতের হয়ে প্রথম জোড়া অলিম্পিক্স  নজির রয়েছে সুশীল কুমারের। তিনিও সিন্ধুর মতোই একটি রুপো ও একটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন। কুস্তিগীর সুশীলের প্রথম পদক ২০০৮ সালের বেজিং অলিম্পিক্সে। ৬৬ কেজি ফ্রিস্টাইলে তিনি ব্রোঞ্জ জেতেন। এরপর ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিক্সে রুপো জেতেন সুশীল। সুশীলের পর এ বার অলিম্পিক্সে জোড়া পদক পাওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করলেন সিন্ধু।

বন্ধ করুন