বাংলা নিউজ > ময়দান > ডাবল সেঞ্চুরি না হলেও মুম্বইকে একার হাতে সেমিফাইনালে তুললেন পৃথ্বী
সেঞ্চুরির পর পৃথ্বী। ছবি- বিসিসিআই।
সেঞ্চুরির পর পৃথ্বী। ছবি- বিসিসিআই।

ডাবল সেঞ্চুরি না হলেও মুম্বইকে একার হাতে সেমিফাইনালে তুললেন পৃথ্বী

  • বিজয় হাজারে ট্রফির শেষ চারে মুম্বইয়ের প্রতিপক্ষ কর্নাটক।

চলতি বিজয় হাজারে ট্রফিতে ইতিমধ্যেই একটি ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন পৃথ্বী শ। পুদুচেরির বিরুদ্ধে ২২৭ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ভেঙে দিয়েছেন অতীতের সমস্ত রেকর্ড। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে তো বটেই, এমনকি লিস্ট-এ ক্রিকেটে একজন ক্যাপ্টেন হিসেবে সবথেকে বেশি রানের ব্যাক্তিগত ইনিংস খেলে বিশ্বরেকর্ড গড়েন তরুণ ওপেনার। এবার সৌরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে অল্পের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি হাতছাড়া হল মুম্বই তারকার।

এমনটা নয় যে, শতরানের দোরগোড়ায় গিয়ে আউট হয়ে বসেন বা সঙ্গীর অভাবে পৃথ্বীকে থেমে যেতে হয়। আসলে ব্যক্তিগত দ্বিশতরানে পৌঁছনোর আগেই তিনি দলের জয় নিশ্তিত করে ফেলেন।

পালাম গ্রাউন্ডে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে প্রথমে ব্যাট করে সৌরাষ্ট্র ৫০ ওভারে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ২৮৪ রান তোলে। অভি ব্যয়রট ৩৭, স্নেল প্যাটেল ৩০, বিশ্বরাজ জাদেজা ৫৩, প্রেরক মানকড় ৪, অর্পিত বাসবদা ১০, সামর্থ ব্যাস অপরাজিত ৯০ ও চিরাগ জানি অপরাজিত ৫৩ রান করেন। ২টি উইকেট নেন শামস মুলানি।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে মুম্বই ৪১.৫ ওভারে ১ উইকেটের বিনিময়ে ২৮৫ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়। পৃথ্বী শ ১২৩ বলে ১৮৫ রান করে অপরাজিত থাকেন। তিনি ২১টি চার ও ৭টি ছক্কা মারেন। পৃথ্বী ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ২৯ বলে। ৬৭ বলে শতরানের গণ্ডি টপকে যান তিনি। ১৫০ রানে পৌঁছতে মুম্বই অধিনায়ক খরচ করেন ১০০ বল। চলতি টুর্নামেন্টে পৃথ্বীর এটি তৃতীয় শতরান।

পৃথ্বীকে সঙ্গ দিয়ে যশস্বী জসওয়াল ৭৫ রান করেন। ১১০ বলের ইনিংসে তিনি ১০টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। আদিত্য তারে অপরাজিত থাকেন ২০ রান করে। ম্যাচের সেরা হন পৃথ্বী।

৯ উইকেটের বড় জয়ের সুবাদে বিজয় হাজারে ট্রফির সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে মুম্বই। শেষ চারে তারা মাঠে নামবে কর্নাটকের বিরুদ্ধে।

বন্ধ করুন