বাংলা নিউজ > ময়দান > সচিনের অনুরোধেই নাকি সৈয়দ আজমল উইকেট নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন
সচিন তেন্ডুলকর ও সঈদ আজমল। ছবি- হিন্দুস্তান টাইমস।
সচিন তেন্ডুলকর ও সঈদ আজমল। ছবি- হিন্দুস্তান টাইমস।

সচিনের অনুরোধেই নাকি সৈয়দ আজমল উইকেট নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলেন

  • ম্যাচের শুরুতেই বিপক্ষের চার উইকেট তুলে নেন আজমল।

বহু দিন ধরেই ভারত ও পাকিস্তান দল কোনও রকম দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলে না। এখন শুধুমাত্র বিভিন্ন টুর্নামেন্টেই একে অপরের মুখোমুখি হয় দুই পড়শি দেশ। তবে শুধু মুখোমুখিই নয়, বেশ কিছু বছর আগে একই দলে দুই দেশের ক্রিকেটাররা একই সঙ্গে খেলেছিলেনও বটে। 

২০১৪ সালে লর্ডসের এক প্রদশর্নী ম্যাচে সচিন তেন্ডুলকরের সঙ্গে একই দলে খেলেছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তী স্পিনার সৈয়দ আজমল। স্মৃতির পাতা উল্টে সেই ম্যাচেরই এক মজাদার ঘটনার কথা ক্রিকেট পাকিস্তানের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে জানান আজমল। সেই ম্যাচে মেরিলোবোন ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলা সচিনদের প্রতিপক্ষ ছিল যুবরাজ সিংদের রেস্ট অফ দ্য ওয়ার্ল্ড একাদশ।

আজমল বলেন, ‘ওটা একটা প্রদর্শনী ম্যাচ ছিল, যার জন্য অর্থ সংগ্রহে ক্রিকেটারদের যতক্ষণ সম্ভব মাঠে থেকে খেলা চালিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন ছিল। তবে আমি নিজের প্রথম চার ওভারেই চার উইকেট তুলে নিই। তার পরেই সচিন আমাকে এসে বলে যে এটা একটি প্রদর্শনী ম্যাচ এবং আমি ম্যাচটাকে একটু বেশিই সিরিয়াসলি নিয়ে ফেলেছি। আমি ওকে নিজের স্বাভাবিক ছন্দে বল করছি জানালে প্রত্যুত্তরে ও সবটা বুঝেও বেশি পরিমাণ অর্থ সংগ্রহের জন্য আমায় ম্যাচটা উপভোগ করার পরামর্শ দেয়।’

তাতে কিছুটা হলেও কাজ হয়েছিল বটে। ১২ ওভারে ৬৮ রানে পাঁচ উইকেট থেকে যুবরাজের মারকাটারি ১৩২ রানের ইনিংসে ভর করে রেস্ট অফ দ্য ওয়ার্ল্ড একাদশ ২৯৩ রান করে। তবে অবশেষে জয় আজমলদেরই হয়।

বন্ধ করুন