বাংলা নিউজ > ময়দান > বল হাতে দুরন্ত আফ্রিদি, ব্যাটে রিজওয়ান, তবু হার বাঁচাতে পারল না মুলতান সুলতান্স

শুভব্রত মুখার্জি

সদ্য শুরু হয়েছে পাকিস্তান সুপার লিগের ষষ্ঠ আসর। আর শুরুতেই বেশ কিছু জমজমাট ম্যাচের সাক্ষী হয়ে থাকলেন দর্শকরা। এক উত্তেজনাকর ম্যাচে ১ ওভার বাকি থাকতে মুলতান সুলতান্সকে ৩ উইকেটে হারিয়ে দিল ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। ব্যাট হাতে মহম্মদ রিজওয়ানের দুরন্ত ইনিংস এবং বল হাতে আফ্রিদির অনবদ্য পারফরম্যান্সও মুলতানের হার বাঁচাতে পারল না।

প্রথম ব্যাট করতে নেমে মুলতান তাদের নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৫০ রান বোর্ডে তুলতে সমর্থ হয়। অধিনায়ক মহম্মদ রিজওয়ান ৫৩ বলে ৭১ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলেন। ৮টি চার ও ২টি ছয়ে সাজানো ছিল তাঁর ইনিংস। তাঁকে যোগ্য সঙ্গত দেন রাইলি রুসো। তিনি ১৪ বলে ২৫ রানের একটি ঝোড়ো ইনিংস খেলেন।

শেষের দিকে ক্যারিবিয়ান তারকা কার্লোস ব্রাথওয়েটের ১৪ বলে ২২ রানের ইনিংসে ভর করে বোর্ডে ১৫০ রান তুলতে সমর্থ হয় মুলতান। ব্যাট হাতে এদিন ব্যর্থ হন আফ্রিদি। তিনি কোনও রান না করেই সাজঘরে ফিরে যান। ইসলামাবাদের হয়ে মহম্মদ ওয়াসিম ৩টি উইকেট নেন।

১৫১ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নেমে প্রথমেই সমস্যায় পড়ে ইসলামাবাদ। ওপেনার অ্যালেক্স হেলস ২০ বলে ২৯ রান করেন। এছাড়া টপ অর্ডারের বাকিরা সকলে ব্যর্থ হন। বল হাতে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেন আফ্রিদি। নিজের ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রান দিয়ে তুলে নেন ২ টি উইকেট।

বিধ্বংসী হয়ে ওঠা হেলস এবং আসিফ আলিকে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান তিনি। একটা সময় যখন মনে হচ্ছিল মুলতান হয়ত সহজেই ম্যাচ পকেটস্থ করে নেবে, তখন খেলার রুপ পাল্টে দেন লুইস গ্রেগরি। ৩১ বলে ৪৯ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ৬ বল বাকি থাকতে হাতে ৩ উইকেট নিয়ে দলকে কাঙ্খিত সাফল্য এনে দেন তিনি। ম্যান অফ দি ম্যাচের শিরোপাও জিতে নেন তিনি।

বন্ধ করুন