বাংলা নিউজ > ময়দান > SLvsIND: প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার সলমন বাটের বাজি শিখর ধাওয়ানের ভারত
সাদা বলের ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া (ছবি: গুগল)
সাদা বলের ম্যাচে টিম ইন্ডিয়া (ছবি: গুগল)

SLvsIND: প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার সলমন বাটের বাজি শিখর ধাওয়ানের ভারত

  • ভারতীয় নির্বাচকদের পাশে দাঁড়িয়ে ভারতের শ্রীলঙ্কা সফরের দলের প্রশংসা করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার সলমন বাট। তিনি জানালেন এটা হল ভারতের ‘ইয়ং পাওয়ারফাউস’।

আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফরেরে জন্য নিজেদের দল ঘোষণা করে দিয়েছে ভারত। চলতি বছরের জুলাই মাসে তিনটি একদিনের ম্যাচ ও তিনটি টি২০ ম্যাচ খেলবে শিখর ধাওয়ানের টিম ইন্ডিয়া। ২০ সদস্য ও পাঁচজন নেট বোলার সহ শ্রীলঙ্কা উড়ে যাবে ভারত। তার আগে এই দল নিয়ে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। দীপ দাশগুপ্তের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটার এই দল নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। কিন্তু এবার ভারতীয় নির্বাচকদের পাশে দাঁড়িয়ে ভারতের এই দলের প্রশংসা করলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার সলমন বাট। তিনি জানালেন এটা হল ভারতের ‘ইয়ং পাওয়ারফাউস’।

দেবদুত পাডিক্কাল, রুতুরাজ গায়কোয়াড়, নভদীপ সাইনি, সঞ্জু স্যামসন, ইষান কিষাণ, বরুণ চক্রবর্তী, চেতন শাকারিয়ার সঙ্গে রয়েছেন শিখর ধাওয়ান, ভূবনেশ্বর কুমার, হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুনাল পান্ডিয়া, যুজবেন্দ্র চাহাল, কুলদীপ যাদবদের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। ভারতের এই দলকে নিয়ে বেশ আশাবাদী সলমন বাট। শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য এই দলকে নিয়ে বাজি ধরছেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার।

তিনি জানান, ‘এই ভারতীয় দল হল যুব পাওয়ারহাউস। যদি তুমি ওদের অধিনায়কের দিকে দেখ তাহলে দেখবে সে ভারতের সব ফর্ম্যাটে খেলা অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। যদি আমরা পৃথ্বী শয়ের দিকে দেখি তাহলে তার পিছনে রয়েছে আইপিএল-এর দারুন রেকর্ড। এরপর তারা দেবদুত পাডিক্কালকে দলে রেখেছে, যে আইপিএল-এ ১০০ করেছে। এবং রুতুরাজ গায়কোয়াড়, যিনি ছক্কা ছাড়াই ১৮০র স্ট্রাইকরেট রেখেছিলেন। তাদের কাছে রয়েছে সঞ্জু স্যামসন এবং ইষান কিষাণের মতো চাঞ্চল্যকর উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানরা।’

সলমন বাট ভারতীয় দল নিয়ে আরও জানান, ‘তাদের রয়েছে দু’জন লেগ স্পিনার, একজন বাঁহাতি স্পিনার, একজন বাঁহাতি রিস্ট স্পিনার কুদীপ যাদব। তাদের দারুন একটা বোলিং আক্রমণ রয়েছে পেস বিভাগে অভিজ্ঞ ভূবনেশ্বর কুমার রয়েছেন। ফলে বলা যেতে পারে ওদের অনেক ধরণের ক্রেকেটার রয়েছে। তাদের ঘরোয়া ক্রিকেটের পাশাপাশি ভারত ‘এ’ দলের হয়ে খালের অভিজ্ঞতা রয়েছে তাদের। তারা শ্রীলঙ্কাতে ফেবারিট হয়েই যাবে।’

বন্ধ করুন