বাড়ি > ময়দান > স্টেট চ্যাম্পিয়নশিপে ২৪টি সোনা জয়ী তারকা এখন দিনমজুর, সাহায্যের হাত ক্রীড়ামন্ত্রীর
উঠতি উশু তারকা এখন শ্রমিকের ভূমিকায়। ছবি- টুইটার।
উঠতি উশু তারকা এখন শ্রমিকের ভূমিকায়। ছবি- টুইটার।

স্টেট চ্যাম্পিয়নশিপে ২৪টি সোনা জয়ী তারকা এখন দিনমজুর, সাহায্যের হাত ক্রীড়ামন্ত্রীর

  • সহযোগিতা পেয়ে দেশকে গোল্ড মেডেল এনে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি স্পোর্টস সায়েন্সে বিএসসির ছাত্রীর।

করোনা মহামারির জেরে হঠাৎ করেই থমকে গিয়েছে খেলাধুলো। সেই সঙ্গে এলোমেলো হয়ে গিয়েছে বহু খেলোয়াড়ের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। প্রথম সারির ক্রীড়বিদদের লকডাউনে বিশেষ অসুবিধার মধ্যে পড়তে হয়নি। তবে নিম্ন-মধ্যবিত্ত সমাজ থেকে উঠে আসা অপ্রচলিত খেলাগুলির উঠতি তারকাদের প্রবল আর্থিক সমস্যায় পড়তে হয়েছে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, কোনও রকমে পেট চালানোর দায়ে দিনমজুরের কাজও করতে দেখা যাচ্ছে অনেককেই।

লকডাউনে বহু ক্রীড়াবিদকে শ্রমিকের কাজ করতে দেখা গিয়েছে। বহু খেলোয়াড়কে মাঠে চাষের কাজ অথবা সবজি বিক্রি করতেও দেখা গিয়েছে। সেরকমই হরিয়ানার ২২ বছর বয়সী উশু তারকা শিক্ষাকেও বাধ্য হয়ে শ্রমিকের কাজ করতে হয়।

যদিও কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক এক্ষেত্রে তৎপরতার সঙ্গে এমন দুরবস্থায় পড়া অ্যাথলিটের পাশে দাঁড়ায়। স্টেট চ্যাম্পিয়নশিপে ২৪টি সোনার পদক জয়ী শিক্ষার জন্য এককালীন ৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু। ক্রীড়াবিদদের জন্য গঠিত পণ্ডিত দীনদয়াল উপাধ্যায় জাতীয় জনকল্যাণ তহবিল থেকে এই টাকা শিক্ষার হাতে তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয় ক্রীড়ামন্ত্রকের তরফে।

কঠিন সময়ে এমন সহযোগিতা পেয়ে ক্রীড়ামন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানালেন স্পোর্টস সায়েন্সে বিএসসির ছাত্রী শিক্ষা। তিনি বলেন, ‘এমন মহৎ উদ্যোগের জন্য ক্রীড়ামন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানোর ভাষা নেই আমার। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমি ট্রেনিংয়ে ফিরতে চাই। আমি সকলকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, এক বছরের মধ্যে আমি দেশকে সোনার পদক এনে দেব।’

বন্ধ করুন