বাংলা নিউজ > ময়দান > করোনা বিধি ভাঙায় ৩ মাস থেকে ১ বছর নির্বাসিত হতে পারেন শ্রীলঙ্কার তিন ক্রিকেটার
নির্বাসিত হতে পারেন শ্রীলঙ্কার এই তিন ক্রিকেটার।

করোনা বিধি ভাঙায় ৩ মাস থেকে ১ বছর নির্বাসিত হতে পারেন শ্রীলঙ্কার তিন ক্রিকেটার

  • রবিবার রাতে এক জনৈক ব্যক্তি ডারহ্যামের রাস্তায় শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের দেখতে পেয়ে, তাদের ভিডিয়ো করে সেটা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়ার পর থেকেই সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। দোষ প্রমাণ হওয়ায় তিন ক্রিকেটারকেই সঙ্গ সঙ্গে সাসপেন্ড করা হয়।

জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম ভেঙে এ বারও আরও বড় শাস্তির মুখে পড়তে চলেছেন শ্রীলঙ্কার তিন ক্রিকেটার কুশল মেন্ডিস, নিরোশান ডিকওয়েলা এবং দনুষ্কা গুনাথিলাকা। তিন জনকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড। সোমবারই তিন ক্রিকেটারকে ইংল্যান্ড থেকে সোজা দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডের খবর অনুযায়ী, এই তিন ক্রিকেটারকে ৩ মাস থেকে ১ বছর নির্বাসিত করা হতে পারে। 

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের এক সিনিয়র অফিসিয়াল জানিয়েছেন, ভারতের বিরুদ্ধে সাদা বলের সিরিজ এই তিন ক্রিকেটার কোনও ভাবেই খেলতে পারবেন না। শুধু তাই নয়, তাদের ৩ মাস থেকে ১ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে এই সময়ে আন্তর্জাতিক কোনও ক্রিকেটে অংশ নিতে পারবেন না শ্রীলঙ্কার এই তিন ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কার বোর্ডের সেই সিনিয়র অফিসিয়ালের বক্তব্য, ‘এই নির্বাসনের শাস্তি ৩ মাস থেকে ১ বছরের মধ্যে যা কিছুই হতে পারে।’

রবিবার গভীর রাত থেকেই একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা গিয়েছে, বেশি রাতে শ্রীলঙ্কার দুই ক্রিকেটার কুশল মেন্ডিস এবং নিরোশান ডিকওয়েলা ডারহ্যামের রাস্তায় বসে রয়েছেন। সম্ভবত তারা সেলিব্রেশন করতে বেড়িয়েছিলেন। ভিডিয়োতে দুই ক্রিকেটারকে দেখা গেলেও, তদন্তে জানা যায়, এঁদের সঙ্গে দনুষ্কাও ছিলেন। স্বভাবতই জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম ভাঙার অভিযোগে তিন জনকেই কঠোর শাস্তি পেতে হয়েছে। পাশাপাশি আরও বড় শাস্তি তাঁদের জন্য অপেক্ষা করছে।

২২ গজে কোনও পারফরম্যান্স নেই। তার উপর আবার জৈব সুরক্ষা বলয়ের নিয়ম ভেঙেছেন এই তিন ক্রিকেটার। ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পরেও তাঁদের এই আচরণে ক্ষুব্ধ শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট। প্রশ্ন উঠে গিয়েছে তাঁদের দায়বদ্ধতা নিয়েও।

রবিবার রাতে এক জনৈক ব্যক্তি ডারহ্যামের রাস্তায় শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের দেখতে পেয়ে, তাদের ভিডিয়ো করে সেটা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়ার পর থেকেই সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। এই ঘটনার পরেই তদন্ত শুরু করে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট ম্যানেজমেন্ট। দোষ প্রমাণ হওয়ায় তিন ক্রিকেটারকেই সাসপেন্ড করা হয়।

বন্ধ করুন