বাড়ি > ময়দান > সচিনের শততম শতরান আটকেছিলেন, খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল বোলার ও আম্পায়ারকে
সচিনকে আউট করে ব্রেসনানের উচ্ছ্বাস।
সচিনকে আউট করে ব্রেসনানের উচ্ছ্বাস।

সচিনের শততম শতরান আটকেছিলেন, খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল বোলার ও আম্পায়ারকে

  • ২০১১ সালে টিম ইন্ডিয়ার ইংল্যান্ড সফরের ঘটনা।

খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল টিম ব্রেসনানকে। অপরাধ ছিল সচিনকে আউট করা। আরও স্পষ্ট করে বললে, তেন্ডুলকরকে সেঞ্চুরির দোরগোড়া থেকে ফিরিয়ে দেওয়ার অপরাধেই ব্রিটিশ পেসারকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছিল। তাও আবার যেমন তেমন সেঞ্চুরি থেকে আটানো নয়, তিন অঙ্কে পৌঁছতে পারলে সেটিই হতো মাস্টার ব্লাস্টারের শততম আন্তর্জাতিক শতরান।

২০১১ সালের ইংল্যান্ড সফরের ওভাল টেস্টে ৯১ রানের মাথায় সচিনকে এলবিডব্লিউ করেছিলেন ব্রেসনান। সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি থেকে সচিনকে আটকানো মোটেও ভালো চোখে দেখেননি ভারতীয় সমর্থকরা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইংল্যান্ডের পেসারকে খুনের হুমকি দেন সচিন অনুরাগীরা।

শুধু ব্রেসনানকেই নয়, খুনের হুমকি দিয়ে রীতিমতো চিঠি পাঠানো হয়েছিল আম্পায়ার রড টাকারকে, যিনি তেন্ডুলকরকে লেগ স্টাম্পে যাওয়া বলে লেগ বিফোর দিয়েছিলেন। পরে যখন ব্রেসনানের সঙ্গে দেখা হয় টাকারের, অজি আম্পায়ার ব্রিটিশ পেসারকে জানান, তাঁরে বাড়িতে রীতিমতো পুলিশ প্রহরা বসাতে হয়েছিল।

ওভালে ব্যক্তিগত ৯১ রানের মাথায় সচিনকে যে বলটিকে এলবিডব্লুিউ দেওয়া হয়েছিল, তা লেগ-স্টাম্পে লাগত বলেই ধারণা আম্পায়ারের। সেই সময় ভারতীয় বোর্ডের অনীহায় রিভিউ ব্যাবহৃত হয়নি সিরিজে। যদিও ডিআরএস নিলেও সম্ভবত সচিনকে মাঠ ছাড়তে হতো সেদিন।

বন্ধ করুন