বাংলা নিউজ > ময়দান > UAE T20 League: টাকার থলি নিয়ে আসছে UAE T20 লিগ, প্লেয়ার হারানোর ভয়ে কাঁপছে অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান
UAE T20 League: একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, সেই লিগে খেলার জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার থেকে অনুমতি চেয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার। (:ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে এপি)

UAE T20 League: টাকার থলি নিয়ে আসছে UAE T20 লিগ, প্লেয়ার হারানোর ভয়ে কাঁপছে অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান

  • UAE T20 League: একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, বিশ্বের প্রথমসারির খেলোয়াড়দের ৭০০,০০০ ডলার পর্যন্ত দেওয়া হতে পারে। ইতিমধ্যে সেই লিগে খেলার জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার থেকে অনুমতি চেয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার। সেই লিগে খেলা আটকাতে এবং বিবিএলে খেলানোর জন্য ওয়ার্নারকে ৫০০,০০ ডলার দেওয়া হতে পারে।

প্রথম একাদশে থাকতে পারবেন নয় বিদেশি খেলোয়াড়। আইপিএলের পর হয়ে উঠতে পারে সবথেকে লোভনীয় লিগ। পাশাপাশি বিগ ব্যাশ লিগ, দক্ষিণ আফ্রিকার লিগ এবং পাকিস্তান সুপার লিগের প্রথম ভাগের সঙ্গে সূচি মিলে যেতে পারে। সবমিলিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগ নিয়ে উৎকণ্ঠায় বিশ্বের একাধিক দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম দ্য এজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, দ্য এজ এবং দ্য সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ইংল্যান্ডের কর্তারা জানিয়েছেন যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগ নিয়ে আইসিসির কাছে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের দাবি, যে টি-টোয়েন্টি লিগের প্রচুর বিদেশি খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ থাকবে, সেগুলিকে যেন আইসিসির তরফে অবৈধ বলে ঘোষণা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: আসন্ন আমিরশাহি টি-২০ লিগে ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা আদানি গোষ্ঠীর

সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগের নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিটি দলের প্রথম একাদশে সর্বোচ্চ নয়জন বিদেশি খেলোয়াড় নেওয়া যাবে। স্থানীয় খেলোয়াড় দু'জন থাকলেই হবে। কিন্তু আইপিএল, অস্ট্রেলিয়ার বিবিএল, পাকিস্তানের পিএসএল এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে এত বেশি সংখ্যক বিদেশি খেলানো যায় না। আইপিএলে প্রথম একাদশে সর্বোচ্চ চার বিদেশি খেলানো যায়।

একাধিক রিপোর্ট অনুযায়ী, সেইসঙ্গে অর্থের সর্বোচ্চসীমাও নেহাত নয়। যা আইপিএলের বাইরে সবথেকে লোভনীয় লিগত হতে চলেছে। বিশ্বের প্রথমসারির খেলোয়াড়দের ৭০০,০০০ ডলার পর্যন্ত দেওয়া হতে পারে। ইতিমধ্যে সেই লিগে খেলার জন্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার থেকে অনুমতি চেয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার। সেই লিগে খেলা আটকাতে এবং বিবিএলে খেলানোর জন্য ওয়ার্নারকে ৫০০,০০ ডলার দেওয়া হতে পারে। তবে শুধু ওয়ার্নার নন, প্রায় ১৫ জন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটারের কাছে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগের প্রস্তাব আছে বলে একাধিক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: UAE T20 League: লখনউ সুপার জায়ান্টসের কোচ এবার আদানির দলের সঙ্গে যুক্ত হলেন

কবে শুরু হতে পারে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির টি-টোয়েন্টি লিগ (UAE T20 League)

দ্য এজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামী বছর জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির মধ্যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির লিগ খেলা হতে পারে। সেক্ষেত্রে সরাসরি বিবিএল এবং দক্ষিণ আফ্রিকার টি-টোয়েন্টি লিগের সঙ্গে সূচির ‘ধাক্কা’ লাগবে। সংযুক্ত আরব আমিরশাহির লিগ চলার মধ্যে পিএসএলের প্রথম পর্যায়ের কয়েকটি ম্যাচও পড়তে পারে। কবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সেই লিগ শুরু হবে, তা নিয়ে আলোচনা চলছে বলে ওই রিপোর্টে জানানো হয়েছে।

বন্ধ করুন