বাংলা নিউজ > ময়দান > US Open-এ ১৯-এর জাগরণ, রুডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন আলকারাজ, হলেন কনিষ্ঠতম এক নম্বর
প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম জয় আলকারাজের। ছবি: রয়টার্স

US Open-এ ১৯-এর জাগরণ, রুডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন আলকারাজ, হলেন কনিষ্ঠতম এক নম্বর

  • এ বারের যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনাল ছিল তারকাহীন। দুই তরুণের লড়াই। তবু সেটা হয়ে গেল মহাকাব্যিক। আর সেই ম্যাচেই ৬-৪, ২-৬, ৭-৬ (৭-১), ৬-৩-এ ক্যাসপার রুডকে হারিয়ে জয় ছিনিয়ে নিলেন কার্লোস আলকারাজ।

১৯-এর তরুণ। চনমনে, প্রাণ প্রাচুর্যে ভরপুর। এনার্জি লেভেল একেবারে তুঙ্গে। সেই তরুণ কার্লোস আলকারাজই আবার ইউএস ওপেনের মঞ্চে নতুন ইতিহাস রচনা করে ফেললেন। শুধুমাত্র ক্য়াসপার রুডকে হারিয়ে তিনি চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বলে নয়। প্রথম বার গ্র্যান্ড স্লামের ফাইনালে উঠেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বলেও নয়। এ দিন তিনি কনিষ্ঠতম প্লেয়ার হিসেবেও বিশ্ব ব়্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান দখল করেন। যেটা নিঃসন্দেহে বড় কৃতিত্ব ১৯ বছরের আলকারাজের।

আরও পড়ুন: স্ট্রেট সেটে জাবেউরকে উড়িয়ে US Open-এর নতুন রানি ইগা

স্প্যানিশ তরুণ ফাইনালের আগে টানা তিনটি ম্যাচ পাঁচ সেটের লড়াইয়ে জিতেছেন। তবে হার মানতে তিনি রাজি নন। পিছিয়ে পড়েও লড়াইয়ে ফিরে আসেন। সেই সঙ্গে প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে দেন। এ দিনও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হল। কিন্তু এই লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত নরওয়ের ক্যাসপার রুডকে মাত দিলেন স্প্যানিশ তরুণ। এ বারের যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের ফাইনাল ছিল তারকাহীন। দুই তরুণের লড়াই। তবু সেটা হয়ে গেল মহাকাব্যিক। আর সেই ম্যাচেই ৬-৪, ২-৬, ৭-৬ (৭-১), ৬-৩ জয় ছিনিয়ে নিলেন আলকারাজ।

প্রথম সেট থেকেই একে অপরকে ছাপিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিল দুই তরুণ। তবে দিনটা ছিল আলকারাজের। প্রথম সেটের তৃতীয় গেমেই রুডের সার্ভিস ব্রেক করেন আলকারাজ। ২-১ এগিয়ে যান তিনি। তবে এতে কিছুটা ধাক্কা খান রুড। তার উপর প্রথম সেটে তিনটি এস মারেন স্প্যানিশ তরুণ। সেই সঙ্গে আলাকারাজের বিশেষত্ব হল এনার্জি। মারাত্মক এনার্জি তাঁর। এ মাথা, ও মাথা দৌড়াতে থাকেন। যে কারণে টেনিসের পাশাপাশি এই দৌড়ও আলকারাজকে এগিয়ে রেখেছিল। সেই সঙ্গে নেট পয়েন্টে, ড্রপ শটের ক্ষেত্রেও এগিয়ে ছিলেন আলকারাজ। শেষ পর্যন্ত প্রথম সেটটি স্প্যানিশ তরুণ ৬-৪ জিতে যায়।

দ্বিতীয় সেটে দুরন্ত প্রত্য়াবর্তন করেন রুড। যে নেট পয়েন্ট এবং ড্রপ শট আলকারাজের অন্যতম শক্তি ছিল, সেটাকে হাতিয়ার করে রুড ৬-২ সেটটি জিতে নেন। ষষ্ঠ গেমে আলকারাজের সার্ভিস ব্রেক করে ৪-২ এগিয়ে গিয়েছিলেন। এর পর আলকারাজ বেশ কিছু ভুল করে বসেন। এ দিকে ওভার হেড ব্যাক হ্যান্ডে অনবদ্য পয়েন্ট নেন রুড। আলকারাজের কাছে সুযোগ এসেছিল সার্ভিস ব্রেক করার। তবে ব্যর্থ হন আলকারাজ।৫-২ এগিয়ে থাকায় শুধুমাত্র সার্ভিস ধরে রাখলেই হত। আলকারাজারের ভুলের সুযোগে আরও একটা ব্রেক পয়েন্ট। দ্বিতীয় সেট ৬-২ জিতে সমতা ফেরান ক্য়াসপার।

আরও পড়ুন: US Open-এর মঞ্চে একই ফ্রেমে দুই বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ধোনি-কপিল- ভিডিয়ো

তৃতীয় সেটে হল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। শুরুতেই রুডের সার্ভিস ব্রেক করেন আলকারাজ। তৃতীয় গেমেও ব্রেক পয়েন্টের সুযোগ ছিল আলকারাজের সামনে। কোনও রকমে পরিস্থিতি সামাল দিয়ে ১-২ করেন রুড। পরের গেমেই আলকারাজের সার্ভিস ব্রেক করে ২-২ করেন রুড। সার্ভিস ধরে রেখে করেন ৩-২। সেখান থেকে এই সেটে একটা সময়ে ৫-৪ এগিয়ে গিয়েছিলেন রুড। তবে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ান আলকারাজ। সার্ভ ধরে রেখে ৫-৫ করেন তিনি। তবে সেখান থেকে ৬-৫ এ এগিয়ে থেকে সেট পয়েন্টে দাঁড়িয়েছিলেন রুড। এক বার নয়, তিন বার। ১০ মিনিটের বেশি সময় চলে একটা গেম। অবশেষে তৃতীয় সেট টাইব্রেকারে ৭-৬ (৭-১) জিতে যান আলকারাজ।

চতুর্থ সেটে অবশ্য প্রথম পাঁচ গেমে নিজেদের সার্ভিস ধরে রাখেন রুড এবং আলকারাজ। ষষ্ঠ গেমে ব্রেক পয়েন্ট নিয়ে ৪-২ এগিয়ে যান স্প্য়ানিশ তরুণ। সার্ভিস ধরে রেখে করেন ৫-২। শেষ পর্যন্ত এস মেরে চ্যাম্পিনশিপ পয়েন্ট ছিনিয়ে নেন আলকারাজ। প্রথম বার ফাইনালে উঠেই চ্যাম্পিয়ন। কেরিয়ার এবং এ বছরে দ্বিতীয় ফাইনালে উঠে রানার্স হয়েই থাকলেন ক্যাসপার রুড। প্রসঙ্গত, ফ্রেঞ্চ ওপেনে রাফায়েল নাদালের ফাইনালে হেরেছেন রুড। এ বার হারলেন আলকারাজের কাছে।

বন্ধ করুন