বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘বিরাটের দম বন্ধ হয়ে আসছিল,’ কোহলির পদত্যাগ নিয়ে প্রাক্তন নির্বাচকের দাবি
কোহলির পদত্যাগ নিয়ে প্রাক্তন নির্বাচকের যুক্তি
কোহলির পদত্যাগ নিয়ে প্রাক্তন নির্বাচকের যুক্তি

‘বিরাটের দম বন্ধ হয়ে আসছিল,’ কোহলির পদত্যাগ নিয়ে প্রাক্তন নির্বাচকের দাবি

  • কেন টেস্ট থেকে অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি? এবার বিতর্ক থেকে পর্দা তুললেন ভারতের প্রাক্তন নির্বাচক।

কেন টেস্ট থেকে অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি? এবার বিতর্ক থেকে পর্দা তুললেন ভারতের প্রাক্তন নির্বাচক। টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলি কেন হঠাৎ করে টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলেন? এ বিষয়ে বড় দাবি করলেন ভারতের প্রাক্তন নির্বাচক সাবা করিম। 

গত সপ্তাহটা টিম ইন্ডিয়ার জন্য বেশ বিতর্কের ছিল। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিতলেও, ভারত ১-২ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছে। এরপর সপ্তাহের শেষ দিকে টেস্ট অধিনায়কত্ব থেকে আচমকা ইস্তফা দেন বিরাট কোহলি। সকলেই সে বিষয়ে চমকে যান। এখন তিনি কোনও ফর্ম্যাটেই ভারতীয় দলের অধিনায়ক নন। সকলের মনে একটা প্রশ্ন উঠেছে ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে সফল টেস্ট অধিনায়ক হয়েও কেন হঠাৎ পদত্যাগ করলেন বিরাট কোহলিকে? এবার এ নিয়ে বড় দাবি করলেন ভারতের প্রাক্তন নির্বাচক সাবা করিম।

বিরাট কোহলি যখন ভারতীয় টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব ছেড়েছিলেন, তার পিছনের কারণ নিয়ে অনেকে অনেক জল্পনা করে ছিল। বিরাট যখন সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন বার্তা দিয়ে অধিনায়কত্ব থেকে বিদায় নিয়েছিলেন, তখন ভক্তরাও আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। কেউ কেউ বিসিসিআইকে দায়ী করেন এবং কেউ কেউ এটিকে ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য খুব খারাপ সিদ্ধান্ত বলে অভিহিত করেন। অন্যদিকে, প্রাক্তন ভারতীয় নির্বাচক সাবা করিম বিশ্বাস করেন যে বিরাট কোহলি অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন কারণ তিনি অবশ্যই দম বন্ধ করা সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলেন। 

'ইন্ডিয়া নিউজ'-এর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সাবা করিম বলেন, ‘এর পিছনে আসল কারণ কী তা বলা খুব কঠিন। গত চার-পাঁচ মাসে আমরা যে ছবি দেখেছি, তাতে মনে হচ্ছে তার ওপর চাপ বাড়ছে। তিনি নিশ্চয়ই দম বন্ধ করা অবস্থায় ছিলেন। যে কারণে তিনি অধিনায়কত্বের সাথে সম্পর্ক শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিরাট কোহলি এমন একজন মানুষ যে লড়াই থেকে পিছপা হয় না।’ সাবা করিম বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের পর অধিনায়কত্ব ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। আমি মনে করি সমস্যাটি ভুলভাবে পরিচালনা করা হয়েছে। নির্বাচকরা যদি তাদের সিদ্ধান্ত আরও ভালভাবে জানাতেন তবে জিনিসগুলি আরও সহজ হত। আমাদের টেস্টের জন্য প্রস্তুত অধিনায়ক নেই এবং কোহলির থাকা উচিত ছিল। কিন্তু তিনি চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন কারণ তিনি অনুভব করেছিলেন যে তাকে তার প্রাপ্য সম্মান দেওয়া হয়নি।’

বন্ধ করুন