বাংলা নিউজ > ময়দান > ZIM vs BAN: চোট পেয়ে স্ট্রেচারে মাঠ ছাড়লেন লিটন, ব্যাট হাতে দুর্দান্ত নজির তামিমের
স্ট্রেচারে মাঠ ছাড়ছেন লিটন। ছবি- টুইটার।

ZIM vs BAN: চোট পেয়ে স্ট্রেচারে মাঠ ছাড়লেন লিটন, ব্যাট হাতে দুর্দান্ত নজির তামিমের

  • নিশ্চিত শতরান হাতছাড়া হয় লিটন দাসের। তামিম ইকবাল এমন এক মাইলস্টোন ছুঁয়ে ফেলেন, যেখানে বাংলাদেশের আর কোনও ক্রিকেটার পৌঁছতে পারেননি।

যেরকম দুর্দান্ত ছন্দে ব্যাট করছিলেন, তাতে শতরান কার্যত বাঁধা দেখাচ্ছিল। তবে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে দুর্ভাগ্যজনকভাবে নিশ্চিত শতরান মাঠে ফেলে আসেন লিটন দাস। চোটের জন্য তাঁকে মাঠ ছাড়তে হয় ইনিংসের মাঝপথেই।

অন্যদিকে এই ম্যাচেই ব্যাট হাতে দুর্দান্ত এক নজির গড়েন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৮০০০ রানের মাইলস্টোন টপকে যান তামিম।

হারারে স্পোর্টস ক্লাবে বাংলাদেশ অবশ্য বড় রানের ইনিংস গড়ে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা প্রত্যেকেই বড়সড় ব্যক্তিগত ইনিংস খেলেন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে বাংলাদেশ ২ উইকেটের বিনিময়ে ৩০৩ রান তোলে। তামিম ৮৮ বলে ৬২ রান করেন। তিনি ৮টি চার মারেন। লিটন ৮৯ বলে ৮১ রান করেন। তিনি ৯টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন।

এছাড়া এনামুল হক ৬২ বলে ৭৩ রান করেন। তিনি ৬টি চার ও ৩টি ছক্কা মারেন। মুশফিকুর রহিম ৪৯ বলে ৫২ রান করে নট-আউট থাকেন। তিনি ৫টি চার মারেন। মাহমুদুল্লাহ ১২ বলে ২০ রান করে অপরাজিত থাকেন। তিনি ৩টি চার মারেন। ইনিংসের ৩৩.১ ওভারে হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে বসেন লিটন। ফলে তাঁকে অবসৃত হতে হয়। স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়েন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার।

আরও পড়ুন:- CWG 2022 Cricket: গ্রুপ লিগে সব থেকে বেশি উইকেট নিয়েছেন ভারতীয় তারকা, ধারেকাছে নেই কেউ, চোখ রাখুন সেরা ছয়ের তালিকায়

অন্যদিকে তামিম আগেই বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ওয়ান ডে রান সংগ্রহকারীর রের্কড নিজের কাছে রেখেছিলেন। সেই রেকর্ডটাকে তিনি বাড়তি মাত্রা দেন ৮০০০ রানের মাইলস্টোনে পৌঁছে। ২২৯ ম্যাচের ২২৭টি ইনিংসে তামিমের ব্যক্তিগত সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৭.০৬ গড়ে ৮০০৫ রান। তিনি ১৪টি সেঞ্চুরি ও ৫৪টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন।

তামিম ছাড়া বাংলাদেশের আর কোনও ব্যাটসম্যান একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৭ হাজার রানের গণ্ডিও টপকাতে পারেননি। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের হয়ে সব থেকে বেশি রান সংগ্রহকারীদের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন শাকিব আল হাসান। তিনি ২২১ ম্যাচের ২০৯টি ইনিংসে ৩৭.৭৩ গড়ে ৬৭৫৫ রান সংগ্রহ করেছেন। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শাকিব ৯টি সেঞ্চুরি ও ৫০টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন।

আরও পড়ুন:- এবারের লেজেন্ডস লিগে খেলতে দেখা যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভয়ঙ্কর ব্যাটার ক্রিস গেইলকে

তালিকার তিন নম্বরে রয়েছেন মুশফিকুর রহিম। তিনি ২৩৪টি ম্যাচের ২১৯টি ইনিংসে ৩৭.০৮ গড়ে ৬৭৪৯ রান সংগ্রহ করেছেন। ওয়ান ডে ক্রিকেটে মুশফিক ৮টি সেঞ্চুরি ও ৪২টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন। বাকিরা কেউ পাঁচ হাজারেও পৌঁছতে পারেননি।

বন্ধ করুন