বাংলা নিউজ > টেকটক > Video: সারানোর সময়ে এগিয়ে এল গাড়ি, দোকানের শাটারে চেপে গেলেন মেকানিক
ছবি: টুইটার (Twitter)

Video: সারানোর সময়ে এগিয়ে এল গাড়ি, দোকানের শাটারে চেপে গেলেন মেকানিক

  • চেঁচামেচি শুনে স্থানীয় এক ব্যক্তিকেও ছুটে আসতে দেখা যায়। ভিডিয়োর শেষ পর্যন্ত তাঁকে ফোন বের করতে দেখা গিয়েছে। পুরোটাই ধরা পড়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়। সম্ভবত গুরুতর আহত হয়েছেন ওই ব্যক্তি।

বনেট খুলে গাড়ি সারাচ্ছিলেন এক মেকানিক। আর সেই সময়েই ঘটে গেল সাংঘাতিক বিপদ। হঠাত্ই এগিয়ে এল অটোম্যাটিক ট্রান্সমিশনের গাড়িটি। দোকানের ধাতব শাটার ও গাড়ির মাঝে আটকে গেলেন মেকানিক। এমনই একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভিডিয়োর শুরুতে মেকানিককে চালকের কেবিনের ভিতর থেকে গাড়ির বনেট খুলতে দেখা যাচ্ছে। তার কয়েক সেকেন্ড পর, তিনি ইঞ্জিনে বগিতে কিছু পরিবর্তন করেন। এরপর হঠাত্ই গাড়িটি এগিয়ে আসে। সামনেই তখন ওই মেকানিক। মুহূর্তের মধ্যে স্টিলের দরজা ও গাড়ির মধ্যে চেপে যান তিনি।

সঙ্গে সঙ্গে সেখানে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী ২ মহিলা ছুটে আসেন। একজন বাড়ির ভিতরে গিয়ে শাটারটি খোলার চেষ্টা করেন। অপর এক মহিলার কোলে শিশু। সেই অবস্থাতেই তিনি গাড়ির দরজা খুলে সাহায্য করার চেষ্টা করেন। কিন্তু সম্ভবত তিনি গাড়িটিতে সমস্যা থাকায় তিনি কিছু করতে পারেননি।

তাঁদের চেঁচামেচি শুনে স্থানীয় এক ব্যক্তিকেও ছুটে আসতে দেখা যায়। ভিডিয়োর শেষ পর্যন্ত তাঁকে ফোন বের করতে দেখা গিয়েছে। পুরোটাই ধরা পড়েছে সিসিটিভি ক্যামেরায়।

সম্ভবত গুরুতর আহত হয়েছেন ওই ব্যক্তি। তবে ভিডিয়োটি ঠিক কোথাকার, সে বিষয়ে জানা যায়নি। এক ভারতীয় টুইটার ব্যবহারকারী ভিডিয়োটি টুইট করেছেন।

বিঃ দ্রঃ - নিচের ভিডিয়োর দৃশ্য আপনাকে বিচলিত করতে পারে। 

কিন্তু এমনটা কীভাবে হল?

টুইটারে অনেকেই এই দুর্ঘটনার বেশ কয়েকটি সম্ভাব্য কারণ উল্লেখ করেছেন। অনেকের মতে, এভাবে গাড়ি সারানোর সময়ে আবশ্যিকভাবে হ্যান্ডব্রেক লাগিয়ে রাখা উচিত্।

একজন ব্যবহারকারীর মতে, গাড়িটিতে ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশন রয়েছে। অনেক সময়ে ভুল করে প্রথম গিয়ারে রেখেই আমরা ইঞ্জিন বন্ধ করে দিই। পরে গাড়ি স্টার্ট নিয়ে অ্যাক্সেলেরেটরে চাপ দিতেই গাড়ি এগিয়ে যায়। এভাবে দুর্ঘটনাও হয়। এক্ষেত্রেও সম্ভবত এমনই কিছু হয়েছে। গাড়িটি সম্ভবত গিয়ারে রাখা ছিল। মেকানিক ম্যানুয়ালভাবে অ্যাক্সেলরেট করায় এই বিপত্তি।

ভিডিয়ো পোস্ট করা ব্যক্তি যদিও এটি অটোম্যাটিক ট্রান্সমিশনের গাড়ির বিপদ বলে দাবি করেছেন। তবে অটোম্যাটিক গাড়িতে সাধারণত নিউট্রালে না থাকলে ইঞ্জিন চালু-ই হয় না। ফলে সেক্ষেত্রে গিয়ারে এসে গাড়ি এগিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কম।

ফলে এই ভিডিয়ো থেকে আমরা একটি শিক্ষা নিতেই পারি। সেটি হল, গাড়ি বা মোটরসাইকেলের স্টার্ট বন্ধ করার সময়ে অবশ্যই তা নিউট্রালে রাখতে হবে। ইঞ্জিন বন্ধ করার পরেও তা যাচাই করে নিতে হবে। অন্যদিকে গাড়ি চালু করার পর অ্যাক্সলেরেটর টানার আগে গিয়ার পজিশন নিউট্রাল কিনা তা অবশ্যই যাচাই করে নিতে হবে।

বন্ধ করুন