বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > মনের মতো জীবনসঙ্গী খুঁজে বেড়াচ্ছেন? তাহলে আজকের এই উপায়গুলো আপনারই জন্য
বিয়ে নিয়ে জ্যোতিষ টোটকা।

মনের মতো জীবনসঙ্গী খুঁজে বেড়াচ্ছেন? তাহলে আজকের এই উপায়গুলো আপনারই জন্য

  • শীঘ্র বিবাহ টোটকা, বিবাহ সমস্যায় অনেকেই জর্জরিত। মনের মত জীবনসঙ্গী পাওয়ার জন্য জ্যোতিষ মতে কী প্রতিকার করা যায়? চলুন দেখে নেওয়া যাক এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ মনোজিৎ দে সরকারের মতামত।

যদি আপনার একাকীত্বের জীবন কাটছে এবং মনের কথা বলার মতো কেউ নেই। জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে কয়েকটি বিধি মেনে চললে এর প্রতিকার পেতে পারেন। খুঁজে পাবেন মনের মতো জীবনসঙ্গী। দূর হবে বিবাহের বাধা।

বৈদিক শাস্ত্র অনুসারে মনে করা হয় যদি আপনার জীবন সঙ্গীর খোঁজ এখনও না পেয়ে থাকেন তাহলে শ্রী কৃষ্ণের মন্দিরে বাঁশি ও পান নিবেদন করতে পারেন। দেখবেন আপনার জীবনে প্রেম অবশ্যই আসবে। বিয়েতে সমস্যা দেখা দিলে প্রতি শুক্রবার নিষ্ঠা দিয়ে মা দুর্গার পুজো করুন এবং দেবীকে লাল কাপড় বা ওরনি অর্পণ করুন। এতে খুব শিগগিরই বিয়ের পথ খুলে যাবে। মনের মতো একজন সত্যিকারের জীবনসঙ্গী পেতে ভগবান শিবের উপাসনা করতে পারেন, ১৬ সোমবার উপবাসব্রত পালন করুন নিষ্ঠাভরে এবং সোমবার শিবলিঙ্গে মধু দিয়ে রুদ্রাভিষেক করুন। খুব শীঘ্রই আপনার ইচ্ছাপূরণ হবে।

যদি জন্মপত্রিকাতে গ্রহের দোষে বিবাহে বিলম্ব হয় তাহলে ভগবান বিষ্ণু ও মা লক্ষ্মীর পুজো করুন। প্রতি শুক্লপক্ষের বৃহস্পতিবার স্ফটিকের মালা দিয়ে লক্ষীনারায়ন এর বৈদিক মন্ত্রটি জপ করুন। তার পর ৩ মাস ধরে প্রতি বৃহস্পতিবার মন্দিরে সুপারি দান করুন। প্রতি বৃহস্পতিবার হলুদ এবং শুক্রবার সাদা পোশাক পরিধান করলে বৃহস্পতি ও শুক্র রাশি শক্তিশালী হবে এবং শীঘ্রই বিবাহের যোগ তৈরি হয়ে থাকে। জন্মপত্রিকা অনুসারে বিয়েতে বাধা থাকলে শনিবার ও অমাবস্যার দিনে প্রেমিক-প্রেমিকার দেখা করা উচিত নয় এবং একইভাবে শুক্রবার এবং পূর্ণিমার দিনে একসঙ্গে সময় কাটানো শুভ। এতে তাঁদের একে অপরের মধ্যে ভালোবাসা ও বিশ্বাস দৃঢ় হয়। প্রতি বুধবার রাধা কৃষ্ণ মন্দিরে ভগবান কৃষ্ণকে ফুলের মালা, চিনির মিছরি অর্পণ করুন। সেই সঙ্গে নিষ্ঠা সহকারে প্রার্থনা করুন, আপনার জীবনে ভালবাসা আসবে।

বিশেষজ্ঞ: মনোজিৎ দে সরকার

যোগাযোগ: 8777679776

বন্ধ করুন