বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > শাক খেয়ে মৃত্যু তরুণীর, হতবাক এলাকাবাসী
শাক খেয়ে গুরুতর অসুস্থ তরুণী, ঘটে গেল মর্মান্তিক কাণ্ড।  (প্রতীকী ছবি)
শাক খেয়ে গুরুতর অসুস্থ তরুণী, ঘটে গেল মর্মান্তিক কাণ্ড।  (প্রতীকী ছবি)

শাক খেয়ে মৃত্যু তরুণীর, হতবাক এলাকাবাসী

রাতে খাবার পাতে শাক খেয়েছিল তনুশ্রী। এরপর থেকেই শুরু হয় অসুস্থতা।

পূর্ব মেদিনীপুরের দিঘায় যখন কাঁকড়া খেয়ে একের পর এক মৃত্যু সংবাদে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে তখন উত্তরবঙ্গের শিলিগুড়ি ফুলবাড়ি এলাকায় শাক খেয়ে এক তরুণীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে আতঙ্ক ছড়াল। উল্লেখ্য, এলাকার সাহুডাঙি নাওয়াপাড়া এলাকায় প্যালকা শাক খেয়ে একজনের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। এদিকে খাবারে বিষক্রিয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে হাসপাতাল সূত্র।

শাক খেয়ে কেউ কীভাবে অসুস্থ হতে পারেন, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে এলাকাবাসীদের মধ্যে। ফুলবাড়ির এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সাহুডাঙির বাসিন্দা তনুশ্রীর আকস্মিক মৃত্যু অনেকেই মেনে নিতে পারছেন না। দ্বিতীয় বর্ষের পড়ুয়া এই ছাত্রীর পরিবারের তিন সদস্যই আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। উল্লেখ্য, এই এলাকায় এক বিশেষ ধরনের শাক পাওয়া যায়। যাকে স্থানীয়রা লাফা শাক বা প্যালকা শাক বলে থাকেন। স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, মাঠে বা পুকুরের জলা জমিতে এই শাক দেখা যায়। এদিকে, সোমবার রাতে সেই শাক তুলে নিয়ে গিয়ে বাড়িতে রান্না করে খান ওই তরুণী। এমনই দাবি করেছেন এলাকাবাসী।

এদিকে রাতের রান্নার পরই সেই শাক খাওয়া হয়। এরপর শাক খেয়ে তরুণী অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে শোনা যায়। মুহূর্তে তাঁর সঙ্গেই তাঁর পরিবারের আরও তিনজন অসুস্থতা বোধ করেন। হাসপাতালে ক্রমাগত তনুশ্রীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে শেষে সে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। হাসপাতাল সূত্রের দাবি, তনুশ্রীর মৃত্যু বিষক্রিয়াতে হয়েছে। ফলে, বাড়িতে রান্না করা শাক থেকে কীভাবে বিষক্রিয়া হতে পারে, তা নিয়ে রয়েছে জল্পনা। এদিকে, তাঁর বাড়ির বাকি তিনজনকে স্থানীয় হাসপাতাল উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করে। আপাতত তাঁরা তিনজন সেখানেই চিকিৎসাধীন। গোটা ঘটনায় রীতিমতো স্তম্ভিত এলাকাবাসী।

বন্ধ করুন