বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > একদল শিয়ালের আক্রমণে আহত ৪০ জন গ্রামবাসী, মালদহে শুরু রাত পাহারা
শিয়ালের দলের হানার জেরে আহত হন ৪০ জন গ্রামবাসী।
শিয়ালের দলের হানার জেরে আহত হন ৪০ জন গ্রামবাসী।

একদল শিয়ালের আক্রমণে আহত ৪০ জন গ্রামবাসী, মালদহে শুরু রাত পাহারা

  • তবে গ্রামবাসীদের রোষের মুখ থেকে ছাড়া পায়নি শিয়ালের দলও। দুই শিয়ালকে গ্রামবাসীরা পিটিয়ে মেরেছে।

এবার শিয়ালের হানায় জখম হলেন ৪০ জন গ্রামবাসী। বৃহস্পতিবার অতর্কিতে শিয়ালের দলের হানার জেরে আহত হন ৪০ জন গ্রামবাসী। তার মধ্যে গুরুতর আহত ১৫ জন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আতঙ্ক ছড়িয়েছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর। এখানের হরদম নগর গ্রামে শিয়াল ঢুকে পড়ে। একসঙ্গে এতজন গ্রামবাসী শিয়ালের হাতে আক্রান্ত হওয়ায় থমথমে হরিশ্চন্দ্রপুর। তবে গ্রামবাসীদের রোষের মুখ থেকে ছাড়া পায়নি শিয়ালের দলও। দুই শিয়ালকে গ্রামবাসীরা পিটিয়ে মেরেছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার হরদম নগর গ্রামে আজ ভোরে ১৫ থেকে ২০টি শিয়ালের দল একসঙ্গে ঢুকে পড়ে। তারপর অতর্কিতে গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে হানা দেয়। তখন গ্রামবাসীরা সবে মাত্র ঘুম থেকে উঠেছে। কেউ বেরিয়েছে প্রাতঃভ্রমণে, কেউ মন্দিরে, আর কেউ প্রাতঃক্রিয়া করছেন। তখনই গ্রামবাসীদের উপর বিভিন্ন বাড়িতে ঝাঁপিয়ে পড়ে শিয়ালের দল। আতঙ্কে গ্রামবাসীরা চিৎকার শুরু করে দেন।

এমনকী কয়েকজন গ্রামবাসীকে মুখে করে জঙ্গলের দিকে টেনে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে শিয়ালের দল। শিয়ালের আক্রমণে ঘটনাস্থলে প্রায় ৪০ জন গ্রামবাসী আহত হন। এক গ্রামবাসীর আঙ্গুল খোয়া যায় শিয়ালের কামড়ে। আর গ্রামবাসীর মুখের মাংস পর্যন্ত খুবলে নেয় হিংস্র শিয়াল। এই পরিস্থিতিতে গ্রামবাসীরা লাঠি নিয়ে বেরিয়ে পড়ে শিয়ালের খোঁজে। ধরা পড়ে দুটি শিয়াল। গ্রামবাসীরা গণপিটুনিতে মেরে ফেলে দুটি শিয়ালকে।

এই আহত ৪০ জন গ্রামবাসীকে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। একদল চিকিৎসক ও নার্স তড়িঘড়ি হাসপাতালে চিকিৎসা শুরু করেন আহত গ্রামবাসীদের। ইতিমধ্যে গ্রামে থমথমে পরিবেশ তৈরি হয়েছে। লাঠি হাতে গ্রামবাসীরা পাড়ায় পাড়ায় পাহারায় নেমেছেন। আতঙ্কে ঘরের বাইরে বেরোতে চাইছে না অনেকেই। এআজ থেকে রাত জেগে কাটাবেন গ্ৰামবাসীরা।

বন্ধ করুন