বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবিভিপি–টিএমসিপি সঙ্ঘর্ষে উত্তপ্ত বাজকুল কলেজ চত্বর, একাধিক বাইকে আগুন, বোমাবাজি
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

এবিভিপি–টিএমসিপি সঙ্ঘর্ষে উত্তপ্ত বাজকুল কলেজ চত্বর, একাধিক বাইকে আগুন, বোমাবাজি

  • রাজনৈতিক বিশেজ্ঞদের মতে, পূর্ব মেদিনীপুর বা বাজকুল কলেজে আগে এতটা সক্রিয় ছিল না এবিভিপি। কিন্তু তৃণমূল থেকে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি–তে যোগ দেওয়ার পরই দাপট বেড়েছে বিজেপি–র ছাত্র সংগঠনের।

‌পতাকা লাগানোকে ঘিরে এবিভিপি–টিএমসিপি সঙ্ঘর্ষে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটল পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুল কলেজে। কলেজের গেটের সামনে থাকা একের পর এক বাইকে অগ্নিসংযোগ থেকে শুরু করে কলেজ চত্বরে বোমাবাজি— সোমবার সকাল থেকে এই ঘটনায় রীতিমতো অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সেখানে। ইতিমধ্যে কলেজ চত্বরে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। আর এই ঘটনায় একে অপরের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে এবিভিপি ও টিএমসিপি।

বিজেপি–র ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের (‌এবিভিপি)‌ অভিযোগ, এদিন সকালে বাজকুল কলেজের গেটে পতাকা লাগানোর সময় ‌তাঁদের সমর্থকদের বাধা দেয় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের (‌‌টিএমসিপি)‌ কর্মী–সমর্থকরা। অভিযোগ, তাঁরা প্রতিবাদ করলে ছাত্রদের বাইকে আগুন লাগিয়ে দেয় টিএমসিপি। উঠেছে বোমাবাজির অভিযোগও। এবিভিপি–র দাবি, এই গন্ডগোলের পেছনে রয়েছেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা রবীন মণ্ডল।

এদিকে, এই সঙ্ঘর্ষের জন্য এবিভিপি দায়ী বলে দাবি তৃণমূল ছাত্র পরিষদের। তাঁদের কথায়, এদিন ইচ্ছে করেই কলেজ গেটের সামনে গন্ডগোল পাকায় এবিভিপি–র সমর্থকরা। তাঁদের বোঝাতে এলে বেধে যায় সঙ্ঘর্ষ। জানা গিয়েছে, এই ঘটনায় দু’‌পক্ষের ৫–৬ জন জখম হয়েছেন। ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ।

রাজনৈতিক বিশেজ্ঞদের মতে, পূর্ব মেদিনীপুর বা বাজকুল কলেজে আগে এতটা সক্রিয় ছিল না এবিভিপি। কিন্তু তৃণমূল থেকে শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি–তে যোগ দেওয়ার পরই দাপট বেড়েছে বিজেপি–র ছাত্র সংগঠনের। বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, তার পর থেকেই এবিভিপি–টিএমসিপি–র মধ্যে শুরু হয়েছে ক্যাম্পাস দখলের লড়াই।

বন্ধ করুন