বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সততার নজির গড়ে কুড়িয়ে পাওয়া দুই ভরির সোনার বালা ফেরালেন বনগাঁর যুবক
প্রতীকী ছবি 
প্রতীকী ছবি 

সততার নজির গড়ে কুড়িয়ে পাওয়া দুই ভরির সোনার বালা ফেরালেন বনগাঁর যুবক

  • সততার নজির গড়ে কুড়িয়ে পাওয়া সোনার বালা থানায় জমা দিলেন বনগাঁর এক কাপড়ের দোকানের কর্মী তাপস চক্রবর্তী।

কুড়িয়ে পেয়েছিলেন দুই ভরি ওজনের দুটি সোনার বালা। সততার নজির গড়ে কুড়িয়ে পাওয়া সেই সোনার বালা থানায় জমা দিলেন এক কাপড়ের দোকানের কর্মী তাপস চক্রবর্তী। ঘটনাটি ঘটেছে বনগাঁয়। সততার নজির গড়া তাপস বনগাঁর বাটা মোড়ের এক কাপড়ের দোকানের কর্মচারী।

জানা গিয়েছে বনগাঁর মতিগঞ্জ এলাকার এক সোনার দোকানের মালিক তাঁর কর্মীর হাতে করে কারখানায় দুটি সোনার বালা পাঠিয়েছিলেন। সোনার দোকানের সেই কর্মচারী রাসমোহন সূত্রধর যাওয়ার পথে বাটার মোড়ে এসে খেয়াল করেন যে তাঁর পকেটে সোনার বালাগুলি আর নেই। বিষয়টি নজরে আসতেই দোখানে ফিরে গিয়ে মালিক তরুণ সিনহাকে তা জানান রাসমোহন। এরপর খোঁজ শুরু হলে কয়েক ঘণ্টা পর এক বন্ধুর থেকে তরুণ বাবু জানতে পারেন যে বালা দুটি কুড়িয়ে পেয়ে বনগাঁ থানায় জমা দিয়েছেন এক ব্যক্তি।

খবর পেয়ে বনগাঁ থানায় যান তরুণ সিনহা। সেখানেই পুলিশের উপস্থিতিতে কাপড়ের দোকানের কর্মী তাপস বালা দুটি তুলে দেন তরুণ সিনহার হাতে। পরে সংবাদমাধ্যমকে সোনার দোকানের মালিক বলেন, 'বর্তমান সময়ে এই বালার বাজার মূল্য প্রায় দেড় লক্ষ টাকা। এত দামের জিনিস কুড়িয়ে পেয়ে ফেরত দিয়েছেন তাপস, তাঁকে ধন্যবাদ জানানোর ভাষা নেই।' এদিকে এই বিষয়ে তাপস বলেন, 'ব্যাগ কুড়িয়ে পেয়ে খুলে দেখি ভেতরে দুটি সোনার বালা। আমি আর দেরি না করে সেটি থানায় জমা দিয়ে দিয়ে আসি।'

বন্ধ করুন