Covid-19 সংক্রমণের জেরে কলকাতা বিমানবন্দরে মাস্ক পরিহিত যাত্রীরা। শুক্রবার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। (PTI)
Covid-19 সংক্রমণের জেরে কলকাতা বিমানবন্দরে মাস্ক পরিহিত যাত্রীরা। শুক্রবার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। (PTI)

Covid-19 crisis: আইসোলেশন এড়িয়ে রোগী দেখলেন আমেরিকা ফেরত ডাক্তার

কোয়ারেন্টাইন বিধি ভাঙার জেরে উত্তর ২৪ পরগনায় ওই ডাক্তারের নিজস্ব নার্সিংহোম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ যেন সরষের মধ্যেই ভূতের বাসা! আমেরিকা থেকে ফিরেই নার্সিংহোমে রোগী দেখতে শুরু করলেন চিকিৎসক। কোয়ারেন্টাইন বিধি ভাঙার জেরে উত্তর ২৪ পরগনায় ওই ডাক্তারের নিজস্ব নার্সিংহোম বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট (দক্ষিণ) তৃণমূল বিধায় দীপেন্দু বিশ্বাস বলেন, ‘তিনি আমেরিকা থেকে ফিরেছেন, সে কথা প্রথমে গোপন করেছিলেন ওই চিকিৎসক। কিন্তু পুলিশ তাঁর পাসপোর্ট দেখতে চাইলে তিনি কবুল করেন যে তিন দিন আগে আমেরিকা থেকে ফিরেছেন।’

নার্সিংহোমটি বিধায়কের বাসভবন ও অফিসের একেবারে উলটোদিকে। বিষয়টি রাজ্য পুলিশের শীর্ষকর্তাদের নজরে আনেন দীপেন্দু। তারপরেই চিকিৎসকের কাছে হাজির হয় পুলিশ।

বসিরহাটের এক শীর্ষস্থানীয় পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘গত ১৭ মার্চ আমেরিকা থেকে ওই চিকিৎসক ফেরার পরে এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। বিষয়টি জানার পরে তাঁর নার্সিংহোম বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। তাঁকে নিজের বাড়িতে অন্তত দুই সপ্তাহ কোয়ারেন্টাইন থাকতেও বলা হয়েছে। তিনি এর মধ্যে কোনও রোগীকে দেখেছেন কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

চলতি সপ্তাহের গোড়ায় নদিয়া জেলার এক চিকিৎসকের ছেলের Covid-19 সংক্রমণ ধরা পড়ার পরে ওই চিকিৎসককে নেট দুনিয়ায় তুমুল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়। পরে জানা যায়, তাঁর স্ত্রী রাজ্য সরকারের অধীনস্থ আমলা।

তাঁদের ছেলে ব্রিটেন থেকে রোগের জীবাণু বয়ে ভারতে ফিরলেও স্বেচ্ছা নির্বাসনে না থেকে জনসমক্ষে ঘুরে বেড়িয়েছেন এবং বহু মানুষের শরীরে সংক্রমণের আশঙ্কা তৈরি করেছেন।

ঘটনার জেরে ওই আমলা ও তাঁর পরিবারের কড়া সমালোচনা করেছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।



বন্ধ করুন