বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুলিশ সুপারের দফতরে মহিলা আধিকারিককে কলার ধরে আছড়ে মাটিতে ফেলল দুষ্কৃতীরা
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

পুলিশ সুপারের দফতরে মহিলা আধিকারিককে কলার ধরে আছড়ে মাটিতে ফেলল দুষ্কৃতীরা

  • মঙ্গলবার দুপুরে চার বন্ধুকে নিয়ে পুলিশ সুপারের দফতরে পৌঁছয় অভিযুক্ত। সাইবার পুলিশ থানার এক মহিলা আধিকারিক তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। এরই মধ্যে হঠাৎ মহিলা আধিকারিককে কলার ধরে চেয়ার থেকে মেঝেতে আছড়ে ফেলে অভিযুক্ত যুবক ও তার এক বন্ধু।

খোদ পুলিশ সুপারের দফতরে মহিলা পুলিশ আধিকারিকের ওপর হামলা দুষ্কৃতীদের। প্রাণে বাঁচতে দফতর ছেড়ে পালালেন ওই আধিকারিক। মঙ্গলবার দুপুরে এই ঘটনা আলিপুরদুয়ার পুলিশ সুপারের দফতরের। ঘটনায় ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পলাতক ১।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সম্প্রতি এক তরুণী আলিপুরদুয়ার সাইবার পুলিশ থানায় অভিযোগ করেন, তাঁর নামে ভুয়ো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বানিয়ে অশালীন ছবি পোস্ট করছে কেউ। অভিযোগ পেয়ে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেন পুলিশ আধিকারিকরা। ফেসবুকের তরফে পুলিশকে দেওয়া হয় একটি ফোন নম্বর। সেই ফোন নম্বরে ফোন করে অভিযুক্তকে তলব করেন আধিকারিকরা।

মঙ্গলবার দুপুরে চার বন্ধুকে নিয়ে পুলিশ সুপারের দফতরে পৌঁছয় অভিযুক্ত। সাইবার পুলিশ থানার এক মহিলা আধিকারিক তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। এরই মধ্যে হঠাৎ মহিলা আধিকারিককে কলার ধরে চেয়ার থেকে মেঝেতে আছড়ে ফেলে অভিযুক্ত যুবক ও তার এক বন্ধু। কোনওক্রমে উঠে দফতর ছেড়ে পড়িমরি করে পালান তিনি।

মহিলা আধিকারিকের আর্তচিৎকারে অন্য পুলিশকর্মীরা এসে ৫ জনকে কাবু করেন। এর পর শুরু হয় পুলিশের মার। মারের চোটে অসুস্থ হয়ে পড়ে এক অভিযুক্ত। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে পুলিশের হাত থেকে পালায় ১ জন।

অভিযুক্ত ৪ জনকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের পিছনে রাজনৈতিক মদত রয়েছে কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে, যে দফতর থেকে গোটা জেলার মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয় সেখানেই মহিলা আধিকারিক আক্রান্ত হলে বাকি জেলার মেয়েদের কী হবে? পুলিশ সুপারের দফতরে বসে মহিলা আধিকারিকের ওপর হাত তোলার সাহস কী করে পেল ওই যুবকরা?

 

বন্ধ করুন