বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে লিফলেট ছড়িয়ে পড়ল, নদিয়া জুড়ে তুঙ্গে বিতর্ক
তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। (HT_PRINT)

মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে লিফলেট ছড়িয়ে পড়ল, নদিয়া জুড়ে তুঙ্গে বিতর্ক

  • নদিয়া জেলার রাজনীতিতে মহুয়া মৈত্র বিরোধীরা এই কাজ করেছে বলে মনে করছেন তৃণমূল কংগ্রেসও। লিফলেটে লেখা হয়েছে, সাংসদ স্বজনপোষণ করছেন। নিজের লোকেদের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। সংগঠন তার জন্য ভেঙে পড়ছে। এইসব নানা কথা লেখা হয়েছে। যদিও এই লিফলেট দলের কেউ ছড়িয়েছেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

সম্প্রতি কৃষ্ণনগরের সাংসদ মহুয়া মৈত্র সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন, কোথাও কোনও দুর্নীতি হলে আমাকে জানান। দলের নেতৃত্বকেও জানাতে বলেছিলেন। এই পোস্টের পর জেলায় জোর চর্চা শুরু হয়। আর তা নিয়ে জেলার তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। এই পরিস্থিতিতে এবার তার পাল্টা হিসেবে মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে ছড়ানো হয়েছে একটি লিফলেট। এমনকী বিধানসভায় দলীয় বিধায়ক, মন্ত্রীদের কারও কারও টেবিলে পৌঁছে দেওয়া হয় হলুদ রঙের ওই লিফলেটগুলি। তারপরে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ছড়িয়ে পড়ে।

ঠিক কী বলছেন কৃষ্ণনগরের সাংসদ?‌ সাংসদের যাঁরা বিরোধী তাঁরা এই কাজ করেছেন বলে মনে করা হচ্ছে। লিফলেট নিয়ে আলোড়ন পড়তেই এই বিষয়ে মহুয়া মৈত্রের বক্তব্য, ‘‌স্পিকার বিষয়টির নিন্দা করেছেন। এরকম বিষয় নিয়ে প্রচার করার ফাঁদে পা না দিতেও সংবাদমাধ্যমকে স্পিকার বলেছেন বলে জেনেছি।’‌ সুতরাং এটা একটা চক্রান্ত তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন।

তৃণমূল কংগ্রেস কী বলছে?‌ এই লিফলেট বিতর্ক নিয়ে মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস বলেন, ‘‌এরকম লিফলেটের কথা শুনেছি। তবে চোখে দেখিনি। ভিত্তিহীন অভিযোগ বলেই জানতে পেরেছি। ব্যক্তিগত কোনও রাগ বা অপছন্দ থেকে এরকম লিফলেট অনেক জায়গায় ছড়ায়। তবে রাজনীতিতে এসবের গুরুত্ব কম। অভিযোগ থাকলে সামনে এসে বলা দরকার।’‌

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ নদিয়া জেলার রাজনীতিতে মহুয়া মৈত্র বিরোধীরা এই কাজ করেছে বলে মনে করছেন তৃণমূল কংগ্রেসও। লিফলেটে লেখা হয়েছে, সাংসদ স্বজনপোষণ করছেন। নিজের লোকেদের সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। সংগঠন তার জন্য ভেঙে পড়ছে। এইসব নানা কথা লেখা হয়েছে। যদিও এই লিফলেট দলের কেউ ছড়িয়েছেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

বন্ধ করুন