মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

Lockdown 2.0: কোটায় আটকে থাকা পড়ুয়ারা শীঘ্র বাড়ি ফিরবে, 'অসহায় বোধ না করার' বার্তা মমতার

  • কোটায় আটকে পড়া পড়ুয়াদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

ইতিমধ্যে লকডাউনের জেরে ভিনরাজ্যে আটকে পড়া বাংলার পর্যটক ও পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্য করার ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার জানালেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া বাংলার মানুষদের ফিরিয়ে আনার জন্য যথাসম্ভব চেষ্টা করবে রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন : Lockdown 2.0: লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হোক, মোদীকে বললেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী

সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ভিডিয়ো কনফারেন্স করছেন মমতা। রয়েছেন অন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাও। সেখানে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে সওয়াল করেন মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী কনরাড সাংমা। তারই মাঝে ১১টা নাগাদ দুটি টুইটবার্তায় মমতা বলেন, 'লকডাউনের জেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে থাকা পশ্চিমবঙ্গের মানুষদের বাড়ি ফেরার জন্য যথাসম্ভব সাহায্যের প্রক্রিয়া শুরু করবে রাজ্য সরকার। আমার আধিকারিকদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছি। যতক্ষণ আমি আছি, ততক্ষণ বাংলার কেউ যেন নিজেকে অসহায় বোধ না করেন। এই কঠিন সময়ে আমি আপনাদের সঙ্গে আছি।'

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ভিনরাজ্যে আটকে থাকা রাজ্যের বাসিন্দাদের ফিরিয়ে আনার জন্য তিনি নিজে ব্যক্তিগত স্তরে উদ্যোগ নিচ্ছেন। মমতার কথায়, 'আমি ব্যক্তিগতভাবে বিষয়টি দেখছি। প্রত্যেকে যাতে যথাসম্ভব সাহায্য পান, সেজন্য চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখব না। সেই কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে। বাংলার যে পড়ুয়ারা কোটায় আটকে রয়েছেন তাঁরা শীঘ্রই যাত্রা শুরু করবেন।'

আরও পড়ুন : Lockdown 2.0: তেসরা মে'র পরও লকডাউন বাড়ানোর পক্ষে এই রাজ্যগুলি

রাজনৈতিক মহলের মত, বৈঠক শুরুর আগে মমতার টুইটদুটি থেকে স্পষ্ট প্রধানমন্ত্রীর সামনে বিষয়টি তুলবেন মমতা। কীভাবে আটকে থাকা রাজ্যের বাসিন্দাদের সাহায্য করা হবে, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবে বলেই ধারণা রাজনৈতিক মহলের একাংশের।

বন্ধ করুন