বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পুজো পরবর্তী কোভিড 'ঝড়' রুখতে আগামী দুই সপ্তাহ খুব গুরুত্বপূর্ণ, মত বিশেষজ্ঞদের
পুজো পরবর্তী করোনা ‘ঝড়ে’র শঙ্কায় বাংলা (প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
পুজো পরবর্তী করোনা ‘ঝড়ে’র শঙ্কায় বাংলা (প্রতীকী ছবি, সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

পুজো পরবর্তী কোভিড 'ঝড়' রুখতে আগামী দুই সপ্তাহ খুব গুরুত্বপূর্ণ, মত বিশেষজ্ঞদের

  • নমুনার পরীক্ষার সংখ্যা কম থাকলেও ফের লাফিয়ে লাফিয়ে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে রাজ্যে।

দুর্গাপুজো শেষ হতেই ক্রমে করোনা সংক্রমণ বাড়ার প্রবণতা দেখা দিয়েছে কলকাতা সহ গোটা বাংলায়। নমুনার পরীক্ষার সংখ্যা কম থাকলেও ফের লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এই আবহে করোনা সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে আগামী দুই সপ্তাহ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর ও কলকাতা পুরসভাও বেশ তত্পর। বিশেষজ্ঞদের মতে, আগামী দুই সপ্তাহ যদি কড়া নজরদারি এবং সতর্কতা অবলম্বন করা যায়, তাহলে কেরলের পুনরাবৃত্তি ঠেকানো যেতে পারে বাংলায়।

এই পরিস্থিতিতে কলকতা পুরনিগমের স্বাস্থ্য বিভাগ এবং রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের সকল কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। সতর্কবাণী অনুযায়ী আগামী কয়েকদিনে রাজ্যে টিকাকরণ এবং নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানো হবে। পুজোর দিনগুলিতে বন্ধ থাকার পর কলকাতা পুরনিগমের সবক'টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র থেকে করোনার টিকাকরণ শুরু করা হয়েছে ফের। কলকাতা পুরনিগমের ১৪৪টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আগামিকাল থেকে আরটি-পিসিআর পরীক্ষা, ডেঙ্গি এবং ম্যালেরিয়া পরীক্ষা শুরু করা হবে। পুজোর দিনগুলোতে কলকাতা পুরনিগমের ৩৩টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র সেন্টার খোলা ছিল। তবে এবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কলকাতা পুরনিগমের সবক'টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র খোলা থাকবে।

এদিকে সোমবার রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯০ জন। আগের দিন যা ছিল ৬২৪। আগের দিনের থেকে নমুনা পরীক্ষা কিছুটা কমেছে। তারই মধ্যে সংক্রমণ বেড়েছে। এর মধ্যে কলকাতায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৯৪ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ১০৩ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, উত্তর ২৪ পরগনায় ৩ জনের। হাওড়ায় মারা গিয়েছেন ২ জন, হুগলিতে ২ জন। নদিয়ায় ২ জন ও উত্তর দিনাজপুরে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

বন্ধ করুন