বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Upper primary teachers' recruitment: নয়া বছর থেকে শুরু উচ্চ প্রাথমিকের ভেরিফিকেশন, কী কী নথি লাগবে, কতদিন চলবে? জানুন
আগামী ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
আগামী ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়া। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

Upper primary teachers' recruitment: নয়া বছর থেকে শুরু উচ্চ প্রাথমিকের ভেরিফিকেশন, কী কী নথি লাগবে, কতদিন চলবে? জানুন

  • শুরু হচ্ছে উচ্চ প্রাথমিকের নথি যাচাই বা ডকুমেন্টস ভেরিফিকেশনের প্রক্রিয়া। 

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ মতো অবশেষে আগামী ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে উচ্চ প্রাথমিকের নথি যাচাই বা ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া। যা অনলাইনে হবে। তা নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করল স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি)।

সোমবার কমিশনের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ১১ ডিসেম্বর কলকাতা হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছিল, তা মেনেই নয়া বছরের ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে উচ্চ প্রাথমিকের নথি যাচাই বা ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া। সেজন্য ৪ জানুয়ারি থেকে আগামী ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত প্রার্থীদের কমিশনের ওয়েবসাইটে (westbengalssc.com) যাবতীয় নথি আপলোড করতে হবে। তা পিডিএফ ফর্ম্যাটে আপলোড করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, ওই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যে প্রার্থীরা প্রয়োজনীয় নথি আপলোড করবেন না, তাঁদের অনুপস্থিত বলে বিবেচনা করা হতে পারে। 

কী কী নথি আপলোড করতে হবে?

১) ভোটার কার্ড/ ড্রাইভিং লাইসেন্স/ প্যান কার্ড/ পাসপোর্ট/ আধার কার্ড।

২) মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড।

৩) মাধ্যমিকের মার্কশিট।

৪) উচ্চ মাধ্যমিকের মার্কশিট।

৫) স্নাতক স্তরের সব মার্কশিট।

৬) পেশাদারি কোর্স বা প্রফেশনাল কোয়ালিফিকেশনের সব মার্কশিট।

৭) জাতিগত শংসাপত্র (যদি থাকে) 

৮) সাম্প্রতিক একটি স্ট্যাম্প সাইজের রঙিন ছবি।

এসএসসির বিজ্ঞপ্তি।
এসএসসির বিজ্ঞপ্তি।

গত ১১ ডিসেম্বর উচ্চ প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়াকে অবৈধ হিসেব ঘোষণা করে তা বাতিল করে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য নির্দেশ দেন, নয়া বছরের ৪ জানুয়ারি থেকে তথ্য যাচাইয়ের কাজ শুরু করতে হবে। ২০১৬ সালের বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সেই কাজ করতে হবে। তারপর আগামী বছরের ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে পুরো নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। দ্রুত নিয়োগের লক্ষ্যে সেই রায়ের বিরুদ্ধে ডিভিশন বেঞ্চে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। সূত্রের খবর, আগামী বছর বিধানসভা ভোটের আগেই পুরো নিয়োগ প্রক্রিয়া মিটিয়ে নিতে চাইছে রাজ্য সরকার। সেজন্য দ্রুত নথি যাচাই পর্ব শেষ করে ফেব্রুয়ারির মধ্যে ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ করা যায় কিনা, তা নিয়েও কমিশনের কর্তারা ভাবনাচিন্তা করছেন বলে সূত্রের খবর।

বন্ধ করুন