বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফসল বাঁচাতে রাতের অন্ধকারে মশাল জ্বালিয়ে পাহারা গ্রামবাসীদের
গ্রামবাসী

ফসল বাঁচাতে রাতের অন্ধকারে মশাল জ্বালিয়ে পাহারা গ্রামবাসীদের

  • এলাকার এক বাসিন্দা মনোরঞ্জন মণ্ডল জানান, ‘‌শূকরই এইসব কাজ করছে। কখন যে আসছে বুঝতে পারছি না।'

রাতের অন্ধকারে ক্ষেতে ঢুকে আলু নষ্ট করে দিচ্ছে বন্যপ্রাণীরা। বন্যপ্রাণীদের উৎপাতে রীতিমতো আতঙ্কিত সিউড়ি ১ নম্বর ব্লকের মল্লিকপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গজালপুরের কৃষকরা। বণ্যপ্রাণীদের হাত থেকে রক্ষা বন দফতরের সাহায্য চাইছেন তাঁরা। তবে নিজেদের ফসল রক্ষা করতে এখন থেকেই মশাল জ্বালিয়ে রাত পাহারা শুরু করে দিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অনেকদিন ধরেই তাঁরা দেখছেন তাঁদের ক্ষেতের ফসল নষ্ট করে দিয়ে কেউ চলে যাচ্ছে। বিশেষ করে, আলু চাষে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। আলুর শেকড় সমেত উপড়ে ফেলে দিয়ে চলে যাচ্ছে। পায়ের ছাপ দেখে গ্রামবাসীরা বুঝতে পারেন, এটা কোনও মানুষের কাজ নয়। বন্য শূকর বা অন্য কোনও বন্যপ্রাণী তাঁদের জমিতে ঢুকে এভাবে বিঘার পর বিঘা ফসল নষ্ট করছে। এরপরই গ্রামবাসীরা ঠিক করেন, তাঁরা রাতে পাহারা দেবেন। সেই মতোই সম্প্রতি গ্রামবাসীরা রাতে মশাল জ্বালিয়ে জমি পাহারা দেওয়া শুরু করেন। কিন্তু এই বন্যপ্রাণীদের হাত থেকে পরিত্রাণের উপায় খুঁজে পাননি গ্রামবাসীরা।

এলাকার এক বাসিন্দা মনোরঞ্জন মণ্ডল জানান, ‘‌শূকরই এই সব কাজ করছে। কখন যে আসছে বুঝতে পারছি না। আমাদের ক্ষতিপূরণ দিলে খুব ভালো হয়। বন দফতরের এই উৎপাত বন্ধ করার যদি কোনও ব্যবস্থা করা হয়, তাহলে খুব সুবিধা হয়।’‌ তিনি জানান, ‘‌আমারা ৮ কাটা জমির ফসল নষ্ট করে দিয়েছে। প্রতিদিনই ফসল নষ্ট করে দিয়ে চলে যাচ্ছে। গ্রামের আরও অনেকের ফসল নষ্ট করে দিয়েছে।’‌

বন্ধ করুন