বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > স্থিতিশীল বুদ্ধদেববাবু, শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি স্ত্রী মীরাদেবীর

স্থিতিশীল আছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা। সূত্রের খবর, তাঁর শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা মোটের উপর উদ্বেগজনক নয়। অন্যদিকে, শারীরিক অবস্থার সামান্য উন্নতি হয়েছে বুদ্ধদেববাবুর স্ত্রী মীরাদেবীর। 

সূত্রের খবর, বাড়িতেই চিকিৎসা চলছে বুদ্ধদেববাবুর। বাইপ্যাপের মাধ্যমে তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ঠিক রাখা হচ্ছে। আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে। অন্যদিকে দক্ষিণ কলকাতার যে হাসপাতালে মীরাদেবী ভরতি আছেন, সেখানকার মেডিক্যাল বুলেটিনে জানানো হয়েছে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী স্ত্রী'র শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। কোনওরকম বাহ্যিক সাহায্য ছাড়াই তাঁর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা স্বাভাবিক আছে।ফুসফুসের স্ক্যানেও উদ্বেগের কিছু ধরা পড়েনি। জ্বর ও ব্যথাও কিছুটা কমেছে বলে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে। 

মঙ্গলবার ৭৭ বছরের বুদ্ধবাবু এবং তাঁর স্ত্রী'র করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক বলেন, 'মঙ্গলবার সকালে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, তাঁর স্ত্রী এবং অ্যাটেনডেন্টের লালারসের নমুনা নেওয়া হয়েছিল। তাঁদের করোনাভাইরাস রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।' আপাতত চিকিৎসকদের পরামর্শে বাড়িতেই নিভৃতবাসে আছেন বুদ্ধবাবু। সিপিআইএম সূত্রে খবর, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজের (সিওপিডি) সমস্যা থাকায় তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যদিও যথারীতি হাসপাতালে ভরতি হতে নারাজ বুদ্ধবাবু। স্বাস্থ্য দফতরের ওই আধিকারিক বলেন, ‘প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে বাড়িতেই পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। তাঁর শারীরিক অবস্থার উপর সারাক্ষণ নজর রাখা হচ্ছে।’ 

তবে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার জন্য মঙ্গলবার রাতে মীরাদেবীকে দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তাঁর চিকিৎসার জন্য একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে।

বন্ধ করুন