বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গাড়ি নথিভুক্তিতে আরও দু’‌দিন, ক্রেতা মহলে খুশির হাওয়া
সব মোটর ভেহিকলস দফতরে ১৯ এবং ২০ অক্টোবর (সোমবার ও মঙ্গলবার) নথিভুক্তির কাজ চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।
সব মোটর ভেহিকলস দফতরে ১৯ এবং ২০ অক্টোবর (সোমবার ও মঙ্গলবার) নথিভুক্তির কাজ চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

গাড়ি নথিভুক্তিতে আরও দু’‌দিন, ক্রেতা মহলে খুশির হাওয়া

  • এই পরিস্থিতিতে সব মোটর ভেহিকলস দফতরে ১৯ এবং ২০ অক্টোবর (সোমবার ও মঙ্গলবার) নথিভুক্তির কাজ চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য।

করোনা আবহেও বিক্রি বাড়ায় কিছুটা স্বস্তিতে গাড়ি শিল্প। কিন্তু গাড়ি তো শুধু কিনলেই হবে না তার নথিভুক্ত করাও প্রয়োজন। অথচ শুক্রবার থেকে রাজ্য সরকারি দফতরে ছুটি পড়ে গিয়েছে। সুতরাং পুজোর আগে নতুন গাড়ি বিক্রি ও তার নথিভুক্তির (রেজিস্ট্রেশন) সম্ভাবনা কঠিন হয়ে উঠেছিল। এই পরিস্থিতিতে সব মোটর ভেহিকলস দফতরে ১৯ এবং ২০ অক্টোবর (সোমবার ও মঙ্গলবার) নথিভুক্তির কাজ চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার।

এই সিদ্ধান্তের পরই সমস্ত আঞ্চলিক পরিবহণ কার্যালয়গুলিকে পাঠানো নির্দেশে ২০ তারিখের মধ্যে বকেয়া নথিভুক্তি শেষ করতে বলেছেন পরিবহণ ডিরেক্টরেটের অধিকর্তা বিশ্বজিৎ দত্ত। এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ডিলারদের সংগঠন ফাডা। আরও দু’‌দিন নথিভুক্তের সময়সীমা মেলায় উৎসবের মুখে খুশির হাওয়া আমজনতার মুখে। কারণ একবার গাড়ি নথিভুক্ত হয়ে গেলে তা রাস্তায় নিয়ে বেরোনো যাবে। তাই হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে।

আর নথিভুক্তি না হলে কেনা গাড়ি ক্রেতার হাতে আসত পুজোর ছুটির পরে। শুক্রবারের পর বুকিং নিচ্ছিলেন না ডিলাররাও। দু’দিন সময় মেলায় নতুন উদ্যমে ঝাঁপিয়েছেন তাঁরা। ফাডার রাজ্যের চেয়ারম্যান সিদ্ধার্থ ভাণ্ডারী বলেন, ‘এটি ব্যবসার পক্ষে সহায়ক সিদ্ধান্ত। আশা করছি পুজোর আগের দিনে বিক্রি ৫% বাড়বে।’

বন্ধ করুন